বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০
Online Edition

বাংলাদেশের সামনে ৩২২ রানের টার্গেট

রফিকুল ইসলাম মিঞা : টিকে থাকার গুরুত্বপূর্ণ এক ম্যাচে বাংলাদেশের সামনে ৩২২ রানের বিশাল টার্গেট দিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। গতকাল আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে উইন্ডিজ করে ৩২১ রান। ফলে টুর্নামেন্টে টিকে থাকতে হলে ৩২২ রান করে জয় পেতে হবে টাইগারদের। কাজটা কঠিনই হতে পারে বাংলাদেশের জন্য। গতকাল টস জিতে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন। আর আগে ব্যাট করার সুযোগ পেয়ে ৩২১ রানের স্কোর গড়ে বাংলাদেশকে কঠিন বিপদের মুখে ঠেলে দিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা কিন্তু ভালো হয়নি ওয়েস্ট ইন্ডিজের। শুরুতেই দলের সেরা ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইলকে শূন্য রানে আউট করে চমক দিয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ক্রিস গেইলকে দ্রুত আউট করার পরও এত বড় স্কোর গড়বে ওয়েস্ট ইন্ডিজ তা কেউ ভাবেনি। দলীয় মাত্র ৬ রানে সাইফউদ্দিনের বলে গেইলকে ফিরিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে কম রানে আটকে রাখার বাংলাদেশ যে স্বপ্ন দেখেছিল তা শেষ পর্যন্ত সফল হয়নি। কারণ গেইল আউট হলেও শাই হোপ, লুইস, হেটমায়ার, হোল্ডার আর পুরানের ব্যাটিং তা-বে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ঠিকই স্কোরটা নিয়ে গেছে ধরাছোঁয়ার বাইরে। দলীয় ৬ রানে গেইল আউট হলেও এভিল লুইস আর শাই হোপ মিলে দলকে নিয়ে গেছে ১২২ রানে। দলীয় ১২২ রানে লুইসকে ফিরিয়ে এই জুটির ভাঙন ধরান সাকিব আল হাসান। আউট হওয়ার আগে লুইস করেন ৭০ রান। ৬৭ বলে ৬ চার আর ২ ছক্কায় সাজানো ছিল লুইসের ইনিংসটি। ব্যাট করতে নেমে পুরানও চেষ্টা করেছেন দলকে এগিয়ে নিতে। কিন্তু দলীয় ১৫৯ রানে পুরানকে ফিরতে হয় সাকিবের বলে সৌম্য সরকারকে ক্যাচ দিয়ে। আউট হওয়ার আগে পুরান ৩০ বলে করেন ২৫ রান। চতুর্থ উইকেট জুটিতে ব্যাট করতে নেমে হেটমায়ার শুরু করেন ঝড়ো ব্যাটিং। শাই হোপের সাথে জুটি করে দলকে বড় স্কোরের পথে এগিয়ে দেয় এই জুটিই। এই জুটি ভাঙার আগেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ পৌঁছে যায় ২৪২ রানে। এই জুটির সংগ্রহ ৮৩ রান। ব্যাটিংয়ে ঝড় তোলা হেটমায়ারকে বিদায় করে ভয়ঙ্কর হয়ে উঠা এই জুটির পতন ঘটান মোস্তাফিজুর রহমান। তবে আউট হওয়ার আগেই মাত্র ২৬ বলে ৪ বাউন্ডারি আর ৩ ছক্কায় ৫০ রান করে বিদায় হন হেটমায়ার। ব্যাট করতে নেমে রানের খাতা খোলার আগেই মোস্তাফিজের দ্বিতীয় শিকার হয়ে মাঠ ছাড়েন আন্দ্রে রাসেল। ফলে ২৪৩ রানে দলটি হারায় ৫ উইকেট। শূন্য রানে রাসেল আউট হলেও ব্যাট করতে নেমে ব্যাটিং তা-ব চালান হোল্ডার। সাইফউদ্দিনের বলে আউট হওয়ার আগে মাত্র ১৫ বল খেলে চার বাউন্ডারি আর ২ ছক্কায় করেন ৩৩ রান। টিকে থেকে ওয়ানডাইনে ব্যাট করতে নামা শাই হোপ সেঞ্চুরির পথেই হাটছিলেন। কিন্তু মোস্তাফিজ শেষ পর্যন্ত তাকে সেঞ্চুরির আশা পূরণ করতে দেননি। সেঞ্চুরি থেকে মাত্র ৪ রান দূরে থাকতে বিদায় নিতে হয় হোপকে। আউট হওয়ার আগে হোপ ১২১ বলে চার বাউন্ডারি আর এক ছক্কায় করেন ৯৬ রান। হোপ সেঞ্চুরি করতে না পারলেও দলকে ঠিকই বড় স্কোরে নিয়ে গেছেন। ব্যাট করতে নেমে কম যাননি ব্র্যাভোও। মাত্র ১৫ বলে ১৯ রান করে সাইফউদ্দিনের বলে বোল্ড হওয়ার আগে দলকে নিয়ে গেছেন তিনশত রান পেরিয়ে ৩২১ রানে। শেষ পর্যন্ত ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৮ উইকেটে করে ৩২১ রান। থমাস ৬ রানের অপরাজিত ছিলেন।  বাংলাদেশের হয়ে তিনটি করে উইকেট নেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ও  মোস্তাফিজুর রহমান। দুটি নেন সাকিব আল হাসান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ