বুধবার ২৭ মে ২০২০
Online Edition

‘প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ’ জানালেন শেখ হাসিনা!

 

সংসদ  রিপোর্টার: জাতীয় সংসদের আসন্ন ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট পেশ করার সময় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল অসুস্থ হয়ে পড়লে তার হয়ে সংসদে বাজেট বক্তৃতা পেশ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিকাল ৪টা ১০ মিনিট থেকে তিনি অর্থমন্ত্রীর পক্ষে বাজেট বক্তৃতাটি পড়েন। অর্থমন্ত্রীর পক্ষে বাজেট ঘোষণার সময় বাজেটের একটি অংশে লেখা ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনাকে ধন্যবাদ’ অংশ পাঠ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় তিনি নিজেই হেসে ফেলেন। হাস্যোজ্জ্বল প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এটি আমার না। আমি অর্থমন্ত্রীর বাজেট পড়ছি।’ -এ নিয়ে সংসদে হাসির রোল পড়ে।

এর আগে অর্থমন্ত্রী ৩টা ৭ মিনিটে তার বাজেট বক্তৃতা শুরু করার অনুমতি চাওয়ার সময় তিনি গুরুতর অসুস্থ এ কথা বলে মাঝে মাঝে বসে পড়ার অনুমতি চান স্পিকারের কাছে। স্পিকার তাকে অনুমতি দেন। তবে বাকি সদস্যদের অনুরোধে বসেই বাজেট বক্তৃতা শুরু করেন তিনি। কিন্তু বাজেট বক্তৃতার সামান্য অংশ পড়েই তিনি অসুস্থতাজনিত কারণে দুইবার বিরতি নেন। বিকাল পৌনে চারটার পর বিরতি নিয়ে তিনি আর বাজেট বক্তৃতা পেশ করার অবস্থায় না থাকলে অন্য কারও সহায়তা চান। এ সময় আগ্রহী হয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেই স্পিকারের অনুমতি নিয়ে অর্থমন্ত্রীর পক্ষে বাজেট বক্তৃতাটি সংসদে পেশ করেন।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী যখন অর্থমন্ত্রীর হয়ে বাজেট বক্তৃতাটি পাঠ করেন তখন বেশ কয়েকবার লিখিত বক্তৃতায় তাকে ধন্যবাদ দেওয়া অংশ পাঠ করতে হয়েছে। শুরুতে এমন একটি পাঠ করে তিনি খানিকটা বিব্রতবোধ করে বলেন, ‘এটা অর্থমন্ত্রীর লিখিত বক্তৃতা পড়ছি। আমার বক্তৃতা হলে আমি নিজে নিজেকে ধন্যবাদ জানাতাম না।’ সংসদে তখন খানিকটা হাস্যরস সৃষ্টি হলে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, ‘আমরা জানি আপনি অর্থমন্ত্রীর লিখিত বক্তৃতা পড়ছেন। বক্তৃতায় যা লেখা আছে তাই পড়বেন।’

বিকাল চারটা ৪০ মিনিটে অর্থমন্ত্রীর বাজেট বক্তৃতা পাঠ শেষ করেন প্রধানমন্ত্রী।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ