মঙ্গলবার ০৪ আগস্ট ২০২০
Online Edition

মে মাসে রাজনৈতিক সন্ত্রাস

মুহাম্মদ ওয়াছিয়ার রহমান : [দুই]
১১ মে সিলেট উইমেন্স মেডেকেল কলেজে এক ইন্টার্ন ডাক্তারকে ছাত্রলীগ সাবেক জেলা সহ-সভাপতি সরোয়ার হোসেন কর্তৃক ৯ মে অস্ত্র উঁচিয়ে ধর্ষণের হুমকি ও অসৌজন্য আচরণ করার প্রতিবাদে শহরের সব মেডিকেল কলেজের ইন্টার্ন ডাক্তাররা কর্ম বিরতি পালন করে। ১২ মে বগুড়ার শেরপুর থেকে পুলিশ ছাত্রী অপহরণ মামলার আসামী সাবেক ছাত্রলীগ উপজেলা সভাপতি ইকবাল হাসান রিপনকে আটক করে। ১৩ মে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যম্পাসে ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন নিয়ে দু’গ্রুপের মধ্যে মারামারি হয়। মারামারিতে আহতরা হলো- রোকেয়া হল ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক শ্রাবনী দিশা, কুয়েত মৈত্রী শাখা সাধারণ সম্পাদক শ্রাবনী শায়লা, রোকেয়া হল সভাপতি বিএম লিপি আক্তার, সুফিয়া হল সাবেক সভাপতি তিলোত্তমা শিকদার ও ফরিদা পারভীনসহ ২০ জন। ১৮ মে পাবনা শহরে সরকারী বুলবুল কলেজের শিক্ষক মাসুদুর রহমানকে লাঞ্ছনাকারী ছাত্রলীগ কলেজ সভাপতি শামসুদ্দিন জুন্নুনকে আটক করে পুলিশ। গত ৬ মে পরীক্ষা চলাকালে নকল করতে বাধা দেয়ায় শিক্ষককে লাঞ্ছিত করে জুন্নুন। সাতক্ষীরার কলারোয়ায় দ্বন্দ্বের জেরে উপজেলা হাসপাতালে ছাত্রলীগ নেতা জি.এম তুষারের হাতের ৪টি আঙ্গুল কাটা পড়ে। ছাত্রলীগ উপজেলা সভাপতি শেখ সাগর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান নাঈছ ও মন্টুসহ কয়েকজন তুষারের ওপর হামলা করে। নাঈছের দায়ের কোপে তুষারের আঙ্গুল কেটে যায়। ঘটনায় জড়িত রেজাউল ইসলাম নামে একজনকে আটক করে পুলিশ।
১৯ মে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসটিতে রাজু ভার্স্কয্যের সামনে কমিটি গঠন নিয়ে ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক গোলাম রব্বানীর হাতে লাঞ্ছিত হয় অপর ছাত্রলীগ নেত্রী ও রোকেয়া হল সভাপতি বিএম লিপি আক্তার। এ সময় রব্বানীর অনুসারীরা আরো ৬ জনকে আহত করে। বদবঞ্চিত নেতারা বিষয়টি সুরাহা করতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করে। ২০ মে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মধুর ক্যান্টিনে দলীয় মারামারিতে ৫ ছাত্রলীগ নেতাকে বহিস্কার করে দলটি। এরমধ্যে স্থায়ী ভাবে বহিস্কার হয় জিয়া হলের কর্মী সালমান সাদিক এবং সাময়িক ভাবে বহিস্কার হয় বিজ্ঞান অনুষদ ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক গাজী মুরসালিন অনু, জিয়া হল কমিটির সদস্য কাজী সিয়াম, সাজ্জাদুল কবীর ও কেন্দ্রয় কমিটির সদস্য জারিন দিয়া। এ ছাড়া দু’জনকে শো’কজ করা হয়েছে। ২৩ মে ঢাকার সাভারে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে মেগা প্রকল্পে টেন্ডারে শিডিউল ছিনতাই করে ছাত্রলীগ। ২১ মে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগ পদবঞ্চিত নেত্রী জারিন দিয়া আত্মহত্যার চেষ্টা করে। তিনি পদ না পেয়ে বরং উল্টা নেতাদের হাতে লাঞ্চিত হন। এ বিষয় নেতিবাচক ভূমিকা নিয়ে ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ান চৌধুরী সোভন ও সাধারণ সম্পাক গোলাম রব্বানীর বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে। ২৬ মে বগুড়া শহরের উডবার্ন পাবলিক লাইব্রারীতে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের ইফতার পার্টিতে ছাত্রলীগের হামলায় ডাকসু ভিপি নুরুল হক নূর ও ফারুকসহ ২০ জন আহত হয়। হামলার ভিডিও ধারণ করায় যমুনা টিভির ক্যামেরাপার্সন শাহ নেওয়াজকে মারধর করে ছাত্রলীগ। ৩০ মে ময়মনসিংহ শহরে ১টি বিদেশী পিস্তল ও গুলীসহ ছাত্রলীগ সাবেক শহর সভাপতি আব্দুল্লাহ আল-মামুন আরিফকে আটক করে পুলিশ, পরে আদালত তার রিমান্ড মঞ্জুর করে। কুড়িগ্রামের চিলমারী দক্ষিণ ওয়ারী কাঁচকোল বাঁধ এলাকা থেকে ৪৫ পিস ইয়াবাসহ ছাত্রলীগ রাণীগঞ্জ ইউনিয়ন সভাপতি আব্দুর রাজ্জাককে আটক করে পুলিশ।
যুব লীগ : ৯ মে কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ও যুবলীগ উপজেলা সভাপতি জাহাঙ্গীর আলমকে এক মামলায় ১৪ বছর এবং অন্য মামলায় ৭ বছরের কারাদ- দেয় আদালত। মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় বড় পয়লা এলাকায় জাপানী টোব্যাকোর কর্মকর্তার কাছে চাঁদা চেয়ে পিটুনী খায় যুবলীগ উপজেলা সাংগঠনিক সম্পাদক সুভাষ রাজবংশী। ১২ মে নোয়াখালী সদরে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদ নিয়ে যুবলীগের হামলায় ৫০টি গাড়ী ভাংচুর ও আহত ৫ জন। জেলা যুবলীগ আহবায়ক ইমন ভট্টের সমর্থকরা এ হামলা চালায়। ১৪ মে ময়মনসিংহ শহরে ডিফেন্স পার্টি অফিসে যুবলীগের দলীয় কোন্দলে রেজাউল করীম রাসেল খুন হয়। নিহত রাসেলের পরিবার দাবী করে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল্লাহ আল-মামুন আরিফ ও তার বাহিনী এই হত্যাকা-ের জন্য দায়ী। ১৬ মে নারায়নগঞ্জের ফতুল্লার ইদ্রাকপুকুর রেলষ্টেশন এলাকা থেকে প্রতারণা মামলার আসামী যুবলীগ কর্মী ইউসুফকে আটক করে পুলিশ। ২০ মে বরিশালের গৌরনদীতে উপজেলা পরিষদ ভাইস-চেয়ারম্যান ও যুবলীগ নেতা ফরহাদ হোসেন মুন্সীর বিরুদ্ধে খাদ্য গুদাম কর্মকর্তার কাছ থেকে ৩৬ লাখ ৭২০ টাকার চেক জোর করে লিখে নেয়াসহ নানা অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়। ২২ মে সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে ধান সংগ্রহ অভিযানে বাধা, ভয়ভীতি দেখান ও অশালীন আচরণ করায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস.এম সাইফুর রহমান মামলা করেন যুবলীগ উপজেলা আহবায়ক সাজ্জাদুল হক রেজার বিরুদ্ধে।
২৪ মে পিরোজপুরের নাজিরপুরে একটি মেয়ের আপত্তিকর ছবি ভিডিও করে ফেসবুকে ছেড়ে দেয়ায় পুলিশ যুবলীগ শেখ মাটিয়া ইউনিয়ন সিনিয়র সহ-সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেনকে আটক করে। উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন আগে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি জাহাঙ্গীর খানের ভাগ্নে রিফাত আল-মামুন স্থানীয় ষষ্ঠ শ্রেনীর একটি মেয়েকে যৌন হয়রানী করে। মোয়াজ্জেম গোপানে ওই ঘটনার ভিডিও ধারণ করে দুই লাখ টাকা চাঁদাদাবী করে। চাঁদা না দেয়ায় ভিডিওটি ফেসবুকে ছেড়ে দেয়। ২৬ মে রাজশাহীর চন্দ্রিমা থানার পবা নতুনপাড়া এলাকা থেকে ১৮নং উত্তর ওয়ার্ড যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক শামিম হোসেনকে ৬ পিস ইয়াবাসহ আটক করে পুলিশ। ২৭ মে শেরপুরের নলিতাবাড়ীতে চোরাই মটর সাইকেল বিক্রির দায়ে যুবলীগ রাজনগর ইউনিয়ন সহ-সভাপতি শাহীনুর ইসলামের নামে মামলা দায়ের হয়। ওই মামলায় শাহীন আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে পাঠায়। ২৮ মে গাজীপুর মহানগরীর গাছা থানা যুবলীগ নেতা রাশেদুজ্জামান জুয়েল ওরফে পিস্তল জুয়েলকে ৫ রাউন্ড গুলী, ৩টি ম্যাগজিন ও ১টি বিদেশী পিস্তলসহ আটক করে র‌্যাব-১। জুয়েলের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজী, জমি দখল ও সন্ত্রাসসহ নানা অভিযোগ পাওয়া যায়।
বিএনপি : ৩০ মে রাজশাহী জেলা বিএনপি যুগ্ম-আহ্বায়ক ওয়াহিদুজ্জামান বুলা নেতা-কর্মীদের তোপের মুখে লাঞ্ছিত হন। জেলা শিল্পকলা একাডেমী চত্বরে ইফতার মাহফিলে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে জেলা জাসাস সাধারণ সম্পাদক সেলিমকে আটক করে।
জামায়াত : ৭ মে খুলনা মহানগরী জামায়াত আমীর মাওলানা আবুল কালাম আজাদকে তার বাসা থেকে আটক করে পুলিশ। ১৪ মে চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গার হাট বোয়ালিয়া থেকে পুলিশ একটি সাংগঠনিক সভা চলাকালে ৪৬ নারী জামায়াত নেতা-কর্মীকে আটক করে।
হিযবুত তাহরির : ১০ মে ঢাকার কেরাণীগঞ্জ পূর্ব চড়াইল ক্লাব রোড এলাকা থেকে হিযবুত তাহরিরের সদস্য রেয়াজ উদ্দিন সেপাইকে আটক করে এন্টি টেরোরিজম ইউনিট পুলিশ। ২৩ মে ঢাকার যাত্রাবাড়ীতে এন্টি-টেরোরিজম ইউনিট পুলিশ হিজবুত তাহরির নেতা জাহিদুল ইসলামকে বিবির বাগিচা ১নং গেট এলাকা থেকে আটক করে।
আনছারুল্লাহ বাংলা টিম : ১৯ মে নারাযনগঞ্জ ফতুল্লা থেকে আনছারুল্লাহ বাংলা টিম সদস্য এস.এম মেহেদী হাসান ওরফে গোলাম রব্বানী ও আবু সাঈদকে আটক করে র‌্যাব-১১।
সর্বহারা : ১ মে বগুড়ার শেরপুরের বোয়ালকান্দি এলাকায় পূর্ববাংলা কমিউনিষ্ট পার্টির (সর্বহারা) দলীয় কোন্দলে এক বন্দুকযুদ্ধে শফিউর রহমান জ্যোতি নিহত হয়। ৯ মে বগুড়ার শেরপুর কাটাগাড়ি বাজার থেকে পূর্ব বাংলা কমিউনিষ্ট পাটির সদস্য রওশন আলী, চন্দন কুমার ও রাজ কুমারকে আটক করে পুলিশ। [সমাপ্ত]

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ