শনিবার ৩০ মে ২০২০
Online Edition

অবিলম্বে খালেদা জিয়া ও আল্লামা সাঈদীর মুক্তি চাই -ব্যারিস্টার আবু বকর মোল্লা

ইউকে লেবার পার্টির ইফতার মাহফিলে জামায়াতের ইউরোপ সমন্বয়কারী ব্যারিস্টার আবু বকর মোল্লা বলেছেন, শেখ হাসিনা রাজনৈতিক ভাবে বেগম খালেদা জিয়াকে মোকাবেলা করতে না পেরে মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলা দিয়ে কারাগারে আটকে রেখেছে। বরেণ্য আলেম আল্লামা দেলোয়ার হোসেন সাঈদীসহ জামায়াতের নেতাদের মিথ্যা মামলায় আটকে রেখেছে। অগণতান্ত্রিক শেখ হাসিনার সরকারকে হটাতে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন সংগ্রাম গড়ে তুলতে হবে। তিনি অবিলম্বে ২০ দলীয় জোটনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও আল্লামা সাঈদীর মুক্তির জোর দাবী জানান।
গত ২ জুন রবিবার ২০ দলীয় জোটের শরিক বাংলাদেশ লেবার পার্টি ইউকে শাখার উদ্যোগে লন্ডনের স্টার ক্যাফে রেস্টুরেন্টে ইফতার ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
ইউকে লেবার পার্টির সমন্বয়কারী রাকেশ রহমানের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন ইউকে যুবদলের সভাপতি মোঃ আবদুর রহীম। বক্তব্য রাখেন ডিএল টিভির চেয়ারম্যান ডালিয়া লাকুরিয়া, জাতীয়তাবাদী ওলামাদলের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি মাওলানা শামিম আহমদ, জামায়াতে ইসলামীর নেতা ব্যারিস্টার আবদুর রহমান খোকা, জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি শফিকুল ইসলাম রিবলু, ৯০ দশকের সাবেক ছাত্রনেতা ব্যারিস্টার ওবায়দুর রহমান টিপু, সাবেক ছাত্রদলনেতা মারুফ গিয়াস বাপ্পি, অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরামের সাধারন সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, লেবার পার্টির ইউকে আহবায়ক নজরুল ইসলাম টুটুল ও যুগ্ম সম্পাদক গোলাম হোসেন হারুন প্রমুখ।
সভাপতির বক্তব্যে রাকেশ রহমান বলেন দেশপ্রেমের কারণেই ১৯৭১ সালে স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলেন শহীদ জিয়াউর রহমান। শহীদ জিয়া সাড়ে তিন বছরের শাসনামল ছিল বাংলাদেশের উন্নয়নের স্বর্ণযুগ। বেগম জিয়াও বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদী শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ করে শহীদ জিয়ার আদর্শে বাংলাদেশকে সমৃদ্ধ ও স্বনির্ভর রাষ্ট্রে পরিণত করেছেন। তাই বাকশালী অপশক্তি জিয়া পরিবারের বিরুদ্ধে পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র করে বেগম জিয়াকে কারান্তরীণ করেছে। তাই বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদের ঐক্যেও প্রতীক বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে দেশে বিদেশী আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। প্রেসবিজ্ঞপ্তি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ