শনিবার ৩০ মে ২০২০
Online Edition

দেশবাসীকে জামায়াতে ইসলামীর ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর মকবুল আহমাদ দেশবাসীকে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়ে গতকাল সোমবার এক শুভেচ্ছা বাণী প্রদান করেছেন।
শুভেচ্ছা বানীতে তিনি বলেন, পবিত্র রামাদান কুরআন নাজিলের মাস। আল্লাহ তা’লা মানবজাতির মুক্তি, কল্যাণ ও হেদায়েতের জন্যই সর্বশেষ আসমানী কিতাব আল-কুরআন নাজিল করেছেন। পবিত্র রামাদান মাস আল্লাহ তা’লার পক্ষ থেকে তার বান্দাদের জন্য এক পবিত্র উপহার। পবিত্র কুরআনের মাধ্যমে আল্লাহ তা’লা মানুষের অন্তরকে পাক-পবিত্র করে একমাত্র তার ভয় সৃষ্টি করে তাকওয়ার গুণে সমৃদ্ধ করতে চান। সেই তাকওয়ার গুণে সমৃদ্ধ ঈমানদার মানুষের সমাজই কেবল একটি উন্নত, শান্তিময় ও কল্যাণকামী রাষ্ট্রের গ্যারান্টি দিতে পারে। যার বাস্তব নমুনা হল রাসূল (সাঃ) কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত মদিনা কেন্দ্রিক কল্যাণ রাষ্ট্র। এ ধরনের রাষ্ট্রে ধর্ম-বর্ণ-নির্বিশেষ সকল মানুষ তার ন্যায্য অধিকার ও সকল ক্ষেত্রে সুবিচার লাভের গ্যারান্টি পেয়ে থাকে।
তিনি আরো বলেন, দেশের জনগণের উপর বর্তমানে চলছে সীমাহীন জুলুম ও রাজনৈতিক নির্যাতন-নিপীড়ন। দরিদ্র জনগণের উপর চলছে সীমাহীন শোষণ ও জুলুম। দেশ বর্তমানে সুদ, ঘুষ, দুর্নীতি, হত্যা, গুম ও সন্ত্রাসের চারণ ভূমিতে পরিণত হয়েছে। নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের তীব্র কষাঘাতে দরিদ্র জনগণ জর্জরিত। এ অবস্থা থেকে মুক্তির জন্য একটি জনকল্যাণকামী রাষ্ট্র কায়েম করা অপরিহার্য হয়ে পড়েছে। আসুন, এ ধরনের একটি জনকল্যাণকামী রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার তীব্র আকাক্সক্ষা নিয়ে আমরা এবারের পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন করি। আল্লাহ পাক তার বিশেষ সাহায্য পাঠিয়ে আমাদের দেশ থেকে সকল প্রকার জুলুম ও অশান্তি দূর করে শান্তির সমাজ কায়েমের ব্যবস্থা করে দিন-- মহান প্রভুর নিকট বিগলিত চিত্তে এ দোয়াই করি।
মকবুল আহমাদ বলেন, প্রিয় দেশবাসীর ভালবাসায় লালিত সংগঠন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী এবং আমার নিজের পক্ষ থেকে আমি দেশবাসী সকলের সুখ-সমৃদ্ধি ও শান্তি কামনা করছি। সেই সাথে আমি সবাইকে আন্তরিকভাবে পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করছি। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ