বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১
Online Edition

শ্রীলংকা বনাম নিউজিল্যান্ড ॥ আফগানিস্তান বনাম অস্ট্রেলিয়া মুখোমুখি আজ

শ্রীলংকা                                   নিউজিল্যান্ড                               অস্ট্রেলিয়া                                 আফগানিস্তান

স্পোর্টস রিপোর্টার : বিশ্বকাপের তৃতীয় দিনে আজ অনুষ্ঠিত হবে দুটি ম্যাচ। প্রথম ম্যাচে মাঠে নামছে শ্রীলংকা বনাম নিউজিল্যান্ড। দ্বিতীয় ম্যাচে মাঠে নামছে অস্ট্রেলিয়া। দলটির প্রতিপক্ষ আফগানিস্তান। প্রথম ম্যাচটি অনুষ্টিত হবে কার্ডিফে বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে তিনটায়। দ্বিতীয় ম্যাচটি শুরু হবে সন্ধ্যা সাড়ে চয়টায়। দিনের প্রথম ম্যাচে শ্রীলংকার বিপক্ষে মিশন শুরু করতে যাচ্ছে নিউজিল্যান্ড। ছয়বার সেমিফাইনালের পর ব্ল্যাকক্যাপসরা চার বছর আগে প্রথমবারের মত টুর্নামেন্টের ফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে। তবে মেলবোর্নে অস্ট্রেলিযার কাছে পরাজিত হয়ে আর শিরোপা স্পর্শ করা হয়নি তাদের। তারকা ব্যাটসম্যান ব্রেন্ডন ম্যাককালামের পরিবর্তে কেন উইলিয়ামসনকে অধিনায়ক করা হয়। তবে দলের মূল শক্তি প্রায় ২০১৫ স্কোয়াডের কাছাকাছিই রয়ে গেছে। গত বিশ্বকাপের পর বিশ্ব র‌্যাংকিংয়ে নিউজিল্যান্ড দলের উন্নতি হয়েছে, তারা কিছু দিনের জন্য র‌্যাংকিংয়ের দ্বিতীয় স্থান দখল করেছিল। তবে নিজ মাঠে দক্ষিণ আফ্রিকা, ইংল্যান্ড এবং ভারতের কাছে পরাজিতও হয়েছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে হারার আগে বিশ্বকাপ প্রস্তুতি ম্যাচে নিউজিল্যান্ড ভারতকে হারিয়েছে। উইলিয়ামসনের নেতৃত্বাধীন দলটি প্রথমবারের মত বিশ্বকাপ শিরোপা জিতে পারে বলে আশাবাদী নিউজিল্যান্ডের সাবেক পেসার জেমস ফ্রাংকলিন। ৫০ ওভার টুর্নামেন্টের দ্বাদশ আসরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ফ্রাংকলিন বলেন,‘নিউজিল্যান্ড খুব ভাল অবস্থানে আছে। কেউই তাদের নিয়ে খুব বেশি কথা বলেনা।’ ‘আমরা সব সময়ই আন্ডারডগ এবং এটা আমাদের ভাল মানিয়ে গেছে... আগামী কয়েক সপ্তাহ আমরা ফর্মে দেখাতে পারলে নিউজিল্যান্ডের বিশ্বকাপ না জেতার কোন কারণ নেই।’ সাম্প্রতিক বছরগুলো ওয়ানডে ক্রিকেটে দুর্দান্ত ফর্ম দেখিয়ে চলেছেন ব্যাটসম্যান রস টেইলর। ২০১৭ সালে তার ব্যাটিং গড় ছিল ৬০’র ওপড়ে এবং গত বছর ছিল ৯০’র বেশি। এছাড়া নিউজিল্যান্ড দলে ব্যাটিং লাইন আপে অপর দুই ড্যাঞ্জারম্যান হলেন র‌্যাংকিংয়ের দ্বাদশ স্থানে থাকা উইলিয়ামসন ও দশ নম্বরে থাকা মার্টিন গাপটিল। কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম ও টিম সাউদিকে নিয়ে দলের পেস আক্রমনের নেতৃত্ব দেবেন ট্রেন্ট বোল্ট। যথার্থ ভিন্নতার মাধ্যমে স্পিন বিভাগ সামলাবেন ইশ সোধি ও মিচেল স্যান্টনার। বোল্ট বলেন,‘টি-২০ ক্রিকেট যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তাতে শেষ পর্যন্ত প্রতি ওভারে ১২ রানও হতে পারে এবং ওয়ানডে ক্রিকেট সংক্ষিপÍ ভার্সনেরই বর্ধিত অংশ হতে যাচ্ছে বলে আমি মনে করি।’ তিনি আরো বলেন,‘১২ রানের ওভারকে যদি আপনি ১৭/১৮ রানে নিতে পারেন তবে শেষ পর্যন্ত এটা বড় পার্থক্য গড়ে দিতে পারে। এ বিষয়টি স্পস্ট থাকলে আমরা টুর্নামেন্টের বহুদূর যেতে পারি।’ ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ের নবম স্থানে থাকা ১৯৯৬ বিশ্বকাপ জয়ী শ্রীলংকার বিপক্ষে স্পস্টতই ফেবারিট হিসেবে নিজেদের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামবে কিউইরা। নিজেদের শেষ নয় ম্যাচের মধ্যে আটটিতে পরাজিত হওয়া শ্রীলংকা দলের নেতৃত্ব দেয়া হয়েছে চার বছর পর ওয়ানডে ক্রিকেটে ফেরা দিমুথ করুনারতেœকে। কিন্তু বিশ্বকাপে শ্রীলংকার রেকর্ড বেশ ভাল। দলটি একবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে, রানার্স আপ হয়েছে দুই বার এবং সেমিফাইনাল খেলেছে একবার। দলটির সাবেক অধিনায়ক মাহেলা জয়াবর্ধনে বলেন,‘শ্রীলংকা সব সময়ই বিশ্বকাপে ভাল করার একটা পথ পেয়ে যায়। হ্যাঁ, দলের সেট আপে কিছু পরিবর্তন ঘটেছে। অধিনায়ক নিজেই কয়েক বছর যাবত ওয়ানডে ক্রিকেট খেলেননি। তবে সে একজন চমৎকার খেলোয়াড়।’ তিনি আরো বলেন,‘ তারা দলে কিছুটা স্থিতিশীলতা আনার চেস্টা করছে। আপনারা দলে এ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ, কুসল পেরেরা, কুসল মেন্ডিজের মত কিছু চিত্তাকর্ষক কেলোয়াড় দেখবেন। এই দলে তারা সকলেই ম্যাচ উইনার। ‘চার অথবা পাঁচটি ম্যাচে জয়ী হতে পারলে আপনি সেমি ফাইনালে খেলার সুযোগ পেতে পারেন । শ্রীলংকা এ বিকল্পটাই চাইবে এবং একই সাথে প্রতিটি ম্যাচেই এটা বাস্তবায়নের চেস্টা করবে। আমি এখনো মনে করি তাদের খুব ভাল একটা সম্ভাবনা আছে।’

দিনের অপর ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। বিশ্বকাপের এ ম্যাচ দিয়েই ক্রিকেটের সর্বোচ্চ পর্যায়ে নিজেদের পুনরায় প্রমান করতে চাইবেন স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নার। টুর্নামেন্টের তৃতীয় ও দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে ব্রিস্টলে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যে সাড়ে ছয়টা শুরু হবে ম্যাচটি। বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারীর দায়ে উভয় তারকাই এক বছর নিষিদ্ধ ছিলেন। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার পথেই তারা ফর্ম ফিরে পেয়েছেন। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ(আইপিএল) টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টর সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী ছিলেন ওয়ার্নার। গত সপ্তাহে অনুশীলন ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছেন স্মিথ। গত বছর খুবই খারাপ গেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ার। তবে তবে এ্যারন ফিঞ্চের নেতৃত্বাধীন দলটি সঠিক সময়েই ফর্মে ফিরেছে এবং ৫০ ওভারের এ টুর্নামেন্টে অন্যতম ফেবারিট হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। গত মার্চে ভারত সফরে প্রথমে পিছিয়ে পড়েও পাঁচ ওয়ানডে সিরিজে স্বাগতিকদের বিরুদ্ধে ৩-২ ব্যবধানে জয়ী হওয়া দলটি স্মিথ ও ওয়ার্নারকে স্বাগত জানিয়েছে। তবে ইংলিশ সমর্থকরা তাদেরকে খুব সহজে ছাড় দেবেনা বলে মনে হচ্ছে। একটি অনুশীলন ম্যাচে তারা স্মিথকে দুয়ো ধ্বনি দিয়েছে এবং ‘প্রতারক’ বলে সম্বোধন করেছে। এবারের আসরে স্মিথ ও ওয়ার্নার বড় ভুমিকা পালন করবে আশা করছেন অস্ট্রেলিযার সাবেক পেসার ব্রেট লী। তবে ইংলিশ দর্শকদের বাজে মন্তব্য বা বৈরী আচরণ গায়ে না মাখার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। অস্ট্রেলিযার হয়ে ২০০৩ বিশ্বকাপ জয় করা লী বলেন,‘ আমি মনে করিনা তাদের প্রমান করার কিছু আছে। তাদের কেবলমাত্র পুনরায় অস্ট্রেলিযার হয়ে ফিরতে পারায় থুশি থাকতে হবে।’ ‘ অস্ট্রেলিযা ক্রিকেট দল তাদেরকে স্বাগত জানিয়েছে এবং আমি মনে করি জয়ের একটা সুযোগ তারা পেয়েছে।’ তিনি আরো বলেন,‘ আপনাদের বার্মি আর্মি আছে, আপনারা কেভিন পিটারসেনের মত সজ্জন খেলোয়াড় পেয়েছেন। তারা স্লেজিং করবে। তবে আপনাকে ঠান্ডা থাকতে হবে।’ প্যাট কামিন্স এবং মিচেল স্টার্কের নেতৃত্বাধীন জেসন বেহরেনডর্ফ, নাথান কালটার নাইল ও কেন রিচার্ডসনকে নিয়ে একটি শক্তিশালী পেস আক্রমন বিভাগও অস্ট্রেলিযা দলে রয়েছে। দুই স্পিনার এডাম জাম্পা ও নাথান লিঁয়র বোলিং আক্রমনে আছে ভিন্নতা। ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিযার বিপক্ষে অনুশীলন ম্যাচেই তার প্রমান রেখেছেন স্পিনাররা। কেবলমাত্র দ্বিতীয়বার ৫০ ওভারের বিশ্বকাপ খেলতে নামা আফগানিস্তানের বিপক্ষে ব্রিস্টলে অপ্রতিরোধ্য ফেবারিট হিসেবে শুরু করবে পাঁচ বারের চ্যাম্পিয়ন অসিরা। পক্ষান্তরে ক্রিকেটের কুলিন অঙ্গনে হারানোর কিছু নেই উন্নিতির শিখরে থাকা আফগানিস্তানের। টুর্নামেন্ট শুরুর মাত্র দুই মাস আগে অধিনায়কত্বে পরিবর্তন এনেছে দুর্বল আফগানিস্তান। অভিজ্ঞ আসগর আফগানকে সরিয়ে তার জায়গায় কম পরিচিত গুলবাদিন নাইবকে ওয়ানডে অধিনায়ক করা হয়েছে। দলের অনেক সিনিয়র সদস্যই যা ভাল চোখে দেখেননি। তবে বিশ্বকাপকে সামনে রেখে এখন তাদের মধ্যে কোন ভেদাভেদ নেই। দলের প্রধান নির্বাচক দৌলত খান আহমাদজাই বলেন,‘ গুলবাদিন জানিয়েছে বিশ্বকাপে আসগরের অভিজ্ঞতা কাজে লাগাবে। তারা এখন একটি সম্মিলিত শক্তি। পরিবর্তন হতে পারে, যেমন শ্রীলংকা তাদের অধিনায়কত্বে পরিবর্তন এনেছে।’ দলের আশা আকাংখার প্রতীক হয়ে উঠবেন এক দিনের  ক্রিকেটে আইসিসি বোলিং র‌্যাংকিংয়ের তৃতীয় ও টি-২০ র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে থাকা তারকা স্পিনার রশিদ খান। ভিন্ন ধর্মী বোলিং দিয়ে প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানদের বোকা বানানোর সক্ষমতা আছে রমিদের। বিশ্বকাপের একটি অনুশীলন ম্যাচে পাকিস্তানকে হারানো আফগানিস্তানের নজর অনেক উঁচুতে। আহমদজাই বলেন,‘ ২০১৫ বিশ্বকাপে রশিদ ও মুজ্(িউর রহমান) ছিলনা। সুতরাং এবার তাদের লক্ষ্য সেমিফাইনাল পর্যন্ত যাওয়া। আমাদের যে টিম কম্বিনেশন তাতে অবশ্যই কিছ দলের বিপক্ষে আপসেট ঘটাবো। কোন কোন দলকে হারাবো আমরা তা চিহ্নিত করেছি। তবে অবশ্যই দলগুলোর নাম আমি বলব না।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ