বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০
Online Edition

বেলকুচি, চৌহালী, এনায়েতপুরে বাঁশ ও বেত শিল্প বিলুপ্তির পথে

বেলকুচি (সিরাজগঞ্জ) : বাঁশ বেত দিয়ে বিভিন্ন জিনিস তৈরি করছে এক শ্রমিক

আব্দুস ছামাদ খান, বেলকুচি সংবাদদতাঃ  সিরাজগঞ্জের বেলকুচি, চৌহালী ও এানায়েতপুর থানা এলাকার গ্রামাঞ্চল থেকে বাঁশ ও বেত শিল্প বিলুপ্তিপ্রায়।উপজেলার প্রাকৃতিক জীবকুল ও পরিবেশ বিপর্যয় বাঁশ ও বেত চাষে প্রয়োজনীয় পুঁজি ও ন্যায্য মুল্য না পাওয়ার কারণে বিলুপ্ত হতে বসেছে এ শিল্প। অন্যদিকে দেশীয় প্লাষ্টিকের বাজার জমজমাট হওয়ায এ পেশায় নিয়োজিতরা বর্তমান বাজারে প্লাষ্টিক পণ্য ও অন্যান্য দ্রব্যের সাথে পাল্লা দিতে না পারায় তাদের কার্যক্রম মুখ থুবড়ে পড়েছে। যার কারণে গ্রাম থেকে হারিয়ে যাচ্ছে বাংলার ঐতিহ্যবাহী এসব শিল্প।
তার সাথে অত্র এলাকার বাঁশ শিল্পের কারিগরদের ভাগ্যে নেমে এসেছে চরম দুর্দিন। অনেকে তাদের পুর্ব পুরুষের পেশাকে আঁকড়ে রাখার আপ্রাণ চেষ্টা করেও হিমশিম খেতে হচ্ছে। একসময় বাঁশ ও বেত শিল্প এলাকার প্রতিটি ঘরে ঘরে বাঁশের তৈরি সামগ্রীর কদর ছিল খুব বেশী। কিন্তু কালের পরিবর্তনের হাওয়ায় এখন তা আর বিশেষ চোখে পড়ে না। অপ্রতুল ব্যবহারে আর বাঁশের মুল্য বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে বাঁশ ও বেত শিল্পীরা তাদের বাপ-দাদার পৈত্রিক পেশাকে ছেড়ে অন্যান্য পেশা বেছে নিতে বাধ্য হচ্ছে। হাতে গোনা কয়েকজন শিল্পের কারিগররা নিরুপায় হয়ে ঐতিহ্যকে  আঁকড়ে ধরে রাখার প্রাণপণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। একসময় বাঁশের তৈরি কুলা.চালনী. খাচা. চাটাই . ডালা. ঝুড়ি. কুলা, চেয়ার. পাখা, টোপা সহ প্রভৃতি বাঁশ-বেত দিয়ে তৈরি করা হতো।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ