শুক্রবার ০৭ আগস্ট ২০২০
Online Edition

রংপুরে ৯ খাদ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানকে ২১ লাখ টাকা জরিমানা

রংপুর অফিস : র‌্যাব-১৩ এর রংপুর এর তত্ত্বাবধানে রংপুর, নীলফামারী ও দিনাজপুর জেলায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আনিসুর রহমান ভেজাল বিরোধী মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালনা করে ৯টি খাদ্য উৎপাদনকারী  প্রতিষ্ঠানকে ২১ লাখ টাকা জরিমানা এবং ৩৫ লাখ টাকার ক্ষতিকর দ্রব্য ধ্বংস করেছে।
র‌্যাব-১৩ রংপুর এর মিডিয়া অফিসার ও সহকারী পরিচালক  এএসপি খন্দকার গোলাম মোর্ত্তূজা  সাংবাদিকদের নিকট প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান, এর অংশ হিসেবে গত ২২ মে নীলফামারী জেলার সৈয়দপুর থানা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ময়লা ও অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে খাবার প্রস্তুত ও প্রক্রিয়াকরণের কারণে ডায়মন্ড চিপ্স কোম্পানিকে ২ লাখ টাকা, খাবারে বিষাক্ত ও ক্ষতিকর রাসায়নিক ব্যবহার করায় নাজ ফুডস্ কোম্পানীকে ২ লাখ টাকা, নোংরা ও দুর্গন্ধযুক্ত পরিবেশে খাবার প্রস্তুত করার অপরাধে আশা বেকারী ও সেমাই কারখানাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া সেমাই ও চিপ্স তৈরির ক্ষতিকর উপাদান ও রাসায়নিক জনসম্মুখে ধ্বংস করা হয়। এছাড়া, গত ২৩ মে রংপুর মহানগরীর কোতয়ালী থানা এলাকার বিভিন্ন বাজার এলাকায় ভেজাল বিরোধী এবং অবৈধ পলিথিন ফ্যাক্টরিতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে ক্ষতিকারক রং ও মেয়াদোত্তীর্ণ তেল ব্যবহার করার অপরাধে ফুলকলি লাচ্ছা ব্রেড এন্ড কনফেকশনারীকে ১ লাখ টাকা, মেয়াদোত্তীর্ণ খাবারে নতুন উৎপাদন তারিখ বসিয়ে বাজারজাতকরণ ও অস্বাস্থ্যকর নোংরা পরিবেশে খাবার প্রস্তুত করায় এভরিডে ফুড কারখানাকে ১ লাখ টাকা, অবৈধ পলিথিন উৎপাদন ও মজুদ করার অপরাধে মেসার্স মালা প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেটিং পলিথিন কারখানাকে ২ লাখ টাকা, অস্বাস্থ্যকর উপকরণ ব্যবহার, পচা ও দুর্গন্ধযুক্ত খাবার পরিবেশনের অপরাধে মিঠু হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্টকে ২ লাখ টাকা এবং ভেজাল তেলের ব্যবহার, ময়লা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্যদ্রব্য উৎপাদনের অপরাধে সোনালী বেকারী ও সেমাই ফ্যাক্টরীকে ২ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। একইসাথে প্রায় ২০ লক্ষ টাকার ভেজাল, মেয়াদোত্তীর্ন সেমাই, বিস্কুট, চানাচুর, কেক, বেকারী উপকরণ ও কাচামাল, পলিথিন ফ্যাক্টরী থেকে নিষিদ্ধ পলিথিন এবং পলিথিন তৈরীর উপকরণ জনসম্মুখে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কর্তৃক ধ্বংস করা হয়। পরবর্তীতে ২৪ মে দিনাজপুর জেলার কোতয়ালী থানা এলাকায় ভেজাল বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে স¦াস্থ্যের জন্য চরম ঝুকিপূর্ণ রাসায়নিকের ব্যবহার ও অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে খাদ্যদ্রব্য উৎপাদন করায় রোলেক্স বেকারীকে ৬ লাখ টাকা জরিমানা করা হয় এবং প্রায় ১০ লক্ষ টাকার ভেজাল দ্রব্যসামগ্রী ধ্বংস করা হয়।
স্বাস্থ্য ও পরিবেশের প্রতি ঝুঁকিপূর্ণ বিভিন্ন অবৈধ কর্মকান্ডের ব্যবহার প্রতিরোধ ও নজরদারির বিরুদ্ধে র‌্যাবের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে র‌্যাব-১৩ এর রংপুর সদর দপ্তর সূত্র জানিয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ