বুধবার ২৫ নবেম্বর ২০২০
Online Edition

প্রভাবশালীদের লোলুপ দৃষ্টি থেকে নদী রক্ষা করতে হবে -ড. হাছান মাহমুদ

স্টাফ রিপোর্টার: প্রভাবশালী ও বিত্তশালীদের লোলুপ দৃষ্টি থেকে আমাদের নদীকে রক্ষা করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। নদীর গুরুত্বের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমাদের সকলের জীবনেই নদীর একটা বিশাল ভূমিকা আছে। আমি নিজেও একজন পরিবেশ আন্দোলন কর্মী। বুড়িগঙ্গা নদী দখল ও দূষণের প্রতিবাদ করতে গিয়ে ২০০৪ সালে আমিও ধাওয়া খেয়েছিলাম।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর ১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন হলে নোঙ্গর ও নদী রক্ষা জোটের উদ্যোগে আয়োজিত ২৩ মে জাতীয় নৌ নিরাপত্তা দিবস ঘোষণার দাবি এবং নদী ও পরিবেশ সুরক্ষায় গণমাধ্যমের ভূমিকা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। আলোচনা সভাটির আয়োজনে সার্বিক সহযোগীতায় ছিলো জাতীয় নদী রক্ষা কমিশন।

নদী বিষয়ক সামাজিক সংগঠন নোঙ্গরের সভাপতি সুমন শামসের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে আলোচনা করেন জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মুজিবুর রহমান হাওলাদার। এছাড়া সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলনের (পবা) সভাপতি আবু নাসের খান, ক্লিন রিভার বাংলাদেশের উপদেষ্টা রুহুল আমিন হাওলাদার, রিভারাইন বাংলাদেশের সভাপতি রোকন উদ্দিন ও বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের (বাপা) সহ-সভাপতি মিহির বিশ্বাস প্রমুখ। তিনি আরও বলেন, নদীগুলো হচ্ছে আমাদের দেহের শিরা-উপশিরার মতো। এগুলো শুঁকিয়ে গেলে আমরা যেমন স্বাস্থ্যবান হতে পারি না, রক্ত দূষিত হলে যেমন ধীরে ধীরে মৃত্যুর দিকে ধাবিত হই, তেমনি নদীগুলো শুঁকিয়ে গেলে, দখল করলে ও নদীর পানি দূষিত হলে দেশ, মানুষ, প্রকৃতি ও পরিবেশ বিপন্ন হয়। বিপন্ন হয় প্রাণিকুল। আমাদের পৃথিবী শুধুতো মানুষের পৃথিবী নয়। সব প্রাণিকুল নিয়েই আমাদের পৃথিবী। তাই আমাদের নদী দখল ও দূষণ মুক্ত করতে হবে। নদী রক্ষায় সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নদী রক্ষায় অনেক পদক্ষেপ নিয়েছেন। এবার ক্ষমতায় আসার পর নদী রক্ষায় সরকারের ভূমিকা আপনারা দেখেছেন। একশ বছরের জন্য ডেল্টা প্ল্যান করা হয়েছে। যা নদী রক্ষায় সরকারের আন্তরিকতার বহিঃপ্রকাশ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ