বুধবার ২৫ নবেম্বর ২০২০
Online Edition

সব সময় চেষ্টা করি দেশে যেন শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় থাকে : প্রধানমন্ত্রী

গতকাল বৃহস্পতিবার গণভবনে বিচারপতি, কূটনৈতিক সরকারি সামরিক বেসামরিক কর্মকর্তাদের সম্মানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইফতার মাহফিলে দোয়ায় অংশ নেন

স্টাফ রিপোর্টার: পবিত্র রমযানের শুভেচ্ছা এবং ঈদের আগাম শুভেচ্ছা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে এগিয়ে নিতে সবার দোয়া চেয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার গণভবনে বিচারপতি, কূটনীতিক ও সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে আয়োজিত ইফতারে তিনি এ সহযোগিতা চান।

ইফতারে সামরিক-বেসামরিক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অংশগ্রহণ করেন। প্রধানমন্ত্রী সাধারণত ইফতার মাহফিলে উপস্থিত সবার সঙ্গে ঘুরে ঘুরে কুশল বিনিময় করেন এবং তাদের খোঁজ-খবর নেন। কিন্তু চোখের চিকিৎসার কারণে তিনি সবার কাছে যেতে না পারায় তাদের উদ্দেশে কথা বলেন।

দেশের উন্নয়ন অগ্রগতির জন্য দোয়া কামনা করেন প্রধানমন্ত্রী। তুলে ধরেন বাংলাদেশের উন্নয়নে তার সরকারের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপ। পরে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের শহীদ সব সদস্য, মহান মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদসহ দেশ-জাতি এবং মুসলিম উম্মাহর শান্তি-সমৃদ্ধি ও উন্নয়ন কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমরা সব সময় চেষ্টা করি, দেশে যেন শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় থাকে। মানুষের জীবনে শান্তি থাকে। আর সন্ত্রাস-জঙ্গীবাদ দুর্নীতি মাদকের হাত থেকে যেন আমাদের সমাজ মুক্তি পায়। 

ইফতার অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে আগত অতিথিদের উদ্দেশে হাত নেড়ে অভিবাদন জানান প্রধানমন্ত্রী। সবাইকে রমযানুল মোবারকবাদ জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আপনাদের এই আগমনে গণভবন ধন্য হয়েছে। আপনারা দোয়া করবেন। আমরা চাই, বাংলাদেশ যে আর্থ সামাজিক উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাচ্ছে, এই উন্নয়নের ধারাটা যেন অব্যাহত রাখতে পারি।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের পররারাষ্ট্রনীতি খুব স্পষ্ট। আমরা সেটা সবসময় মেনে চলি এবং সকলের সঙ্গে আমাদের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে। আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। আগামী মাসে আমরা বাজেট দেবো। বিশাল আকারের বাজেট দিচ্ছি। আমরা মনে করি, আমাদের উন্নয়নের এই ধারাটা অব্যাহত থাকবে।’

দেশবাসীকে পবিত্র রমযান ও ঈদের আগাম শুভেচ্ছা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমি খুব দুঃখিত। এবার হয়তো ঈদে আমি দেশে থাকব না। কারণ আমার বেশ কয়েকটি বিদেশ সফর রয়েছে। আমি জাপান যাচ্ছি, সেখান থেকে সৌদি আরবে ওআইসি সম্মেলন হয়ে ইংল্যান্ড যাবো। সেখান থেকে ৭ তারিখে দেশে ফিরবো। ঈদে যেহেতু দেশে থাকতে পারবো না, তাই এই ইফতার মাহফিল থেকেই সবাইকে ঈদের আগাম শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।’

ইফতারের আগে দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনায় বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। গণভবনের সবুজ লনে বিশাল প্যান্ডেলে আগত অতিথিদের আপ্যায়নের ব্যবস্থা করা হয়। প্যান্ডেলের দক্ষিণ পাশে পুরুষ ও নারীদের জন্য ছিল আলাদা আলাদা নামাজের ব্যবস্থাও।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ