মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

মমতার পাশে ভারতের বিরোধী দলগুলো

১৭ মে, আনন্দবাজার : ভারতের নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে সংঘাতে মমতা ব্যানার্জি পাশে পেলেন দেশটির অধিকাংশ বিরোধী দলগুলোকে। বহু সমাজবাদী পার্টির নেত্রী মায়াবতী, সমাজবাদী পার্টির অখিলেশ যাদব, অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইড়ু, কংগ্রেসের মুখপাত্র রনদিপ সূরজেওয়ালা এবং আরো অনেককে। নির্বাচন কমিশনকে  পক্ষপাতদুষ্ট বলে মমতার প্রতি তারা তাদের সমর্থন জানান।

গত বৃহস্পতিবার নির্বাচন ভবন এক অবাক করা সিদ্ধান্ত নিয়েছে শেষ দফার নির্বাচনের আগে প্রচারের সময় ২০ ঘণ্টা কমিয়ে দিয়ে। এই সিদ্ধান্তকে মমতা গণতন্ত্রের ওপর এক আঘাত বলে মন্তব্য করেছেন এবং নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে বিজেপির হয়ে কাজ করার অভিযোগ করেন।

গত বুধবার রাতে এক সাংবাদ সম্মেলনে মমতা বলেন, আমি দেশের সব রাজনৈতিক দলগুলকে অনুরোধ জানাচ্ছি তারা যেন নির্বাচন কমিশনের এই সিদ্ধান্তর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানান। আর বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে তার আবেদনে সারা দিতে শুরু করেন বিরোধী  দলগুলোর নেতারা।  মায়াবতী বলেন, এটা পরিস্কার যে নির্বাচন কমিশন নরেন্দ্র মোদি এবং আমিত শাহ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিশানা করছে। এটা মেনে নেওয়া যায় না।  অপরদিকে চন্দ্রাবাবু নাইডু টুইট করে বলেন, যদিও অমিত শাহর রোড শোর পরে কলকাতায় গ-গোল  হলো। কিন্তু নির্বাচন কমিশন শাহর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ না নিয়ে পশ্চিমবঙ্গে প্রচারের সময় কমিয়ে দিলেন। অখিলেশও টুইট করে নির্বাচন কমিশনের এই সিদ্ধান্তকে অগণতান্ত্রিক বলেন। তিনি আরো বলেন, সিপিএম নেতা সীতারাম হয়ে চুরি নির্বাচন কমিশনের আচরণ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। সুরজেওয়ালা বলেন, নির্বাচন কমিশনের এই সিদ্ধান্ত ভারতের গণতন্ত্রের ইতিহাসে একটা কালো দাগ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ