মঙ্গলবার ১৩ এপ্রিল ২০২১
Online Edition

 খেলা না হলে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ

স্পোর্টস রিপোর্টার : ডাবলিনে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনাল ম্যাচে হানা দিয়েছে বৃষ্টি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংসের ২১তম ওভারের সময় বৃষ্টি নামে। বৃষ্টির কারণে বন্ধ থাকে ম্যাচ। এর আগে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচটি বৃষ্টিতে ভেস্তে গিয়েছিল। তবে খেলা আর মাঠে না গড়ালে চ্যাম্পিয়ন হবে বাংলাদেশই। গতকাল ফাইনাল ম্যাচে আগে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। আে ব্যাট করার সুযোগ পেয়ে শতরানের জুটি পার করেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুই ওপেনার শাই  হোপ ও সুনিল আমব্রিস। শাই হোপ ও সুনীল অ্যামব্রিসের দুর্দান্ত ওপেনিং জুটিতে প্রথমেই বড় সংগ্রহের ভিত পেয়ে যায় উইন্ডিজ। দুজনেই দেখা পেয়েছেন ফিফটির। বৃষ্টির আগে তাদের সংগ্রহ ছিল ২০.১ ওভারে বিনা উইকেটে ১৩১ রান। হোপ অপরাজিত ৬৮ রানে। আর সুনিল অপরাজিত ৫৯ রানে। বাংলাদেশকে  পেলেই সেঞ্চুরির নেশা চেপে বসে হোপের। দুই দলের সর্বশেষ ৪ দেখায় ৩টি সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন এই ওপেনার। গতকালও ব্যাট করতে নেমে সেই পথে এগুচ্ছিলেন তিনি। ফাইনালে ম্যাচে বৃষ্টির আগে ছিল ক্যারিবীয়দের ব্যাটিং দাপট। তবে বৃষ্টিতে এই ফাইনাল ম্যাচ পরিত্যক্ত হলে লাভবান হবে বাংলাদেশ। আর কপাল পুড়বে ওয়েস্ট ইন্ডিজের। কারণ তখন হিসেবে চলে আসবে গ্রুপপর্বের পারফরম্যান্স। যেখানে যোজন যোজন এগিয়ে বাংলাদেশ। গ্রুপর্বে ৩ জয়ে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে সবার উপরে থেকে শেষ করেছে টাইগাররা। যেখানে ২ জয়ে বোনাস পয়েন্টসহ ৯ পয়েন্ট ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের। এমনকি বাংলাদেশের সঙ্গে মুখোমুখি দুইবারের দেখায় দুটিতেই হেরেছে ক্যারিবীয়রা। তাই বৃষ্টির কারণে ম্যাচ পরিত্যক্ত হলে চ্যাম্পিয়ন হবে বাংলাদেশই। তবে উল্টো বিপদও আছে। বৃষ্টি কঠিন পরিস্থিতির মুখেও ফলতে পারে টাইগারদের। আয়ারল্যান্ডের আবহাওয়ার পূর্বাভাস অনুযায়ী স্থানীয় সময় ৩ টার বৃষ্টি  থেমে যেতে পারে। আর তখন যদি মাঠ খেলার উপযোগী থাকে, তবেই বিপদ। কারণ তখন ম্যাচের দৈর্ঘ্য নেমে আসবে ২০ ওভারে। আর ডি/এল মেথডে ২০ ওভার বাংলাদেশের লক্ষ্য দাঁড়াবে ২০৩ রান। এই লক্ষ্য টপকানো কঠিনই হবে বাংলাদেশের জন্য। আয়োজক বোর্ড ক্রিকেট আয়ারল্যান্ড জানিয়েছে, ফাইনালে আর খেলা না হলে চ্যাম্পিয়ন হয়ে যাবে বাংলাদেশ। গ্রুপ পর্বে সর্বোচ্চ পয়েন্ট থাকার সুবিধাতেই ওয়েস্ট ইন্ডিজকে  পেছনে ফেলে শিরোপা জিতবে বাংলাদেশ। আর সেটা হলে দুইয়ের বেশি দলকে নিয়ে হওয়া কোনও সিরিজে প্রথমবার ট্রফি জয়ের আনন্দে মাতবে টাইগাররা। এর আগে বেশ কয়েকবার ফাইনাল খেললেও এই ধরনের প্রতিযোগিতা থেকে শিরোপা জেতা হয়নি তাদের। বৃষ্টির বাগড়ায় খেলা বন্ধ হওয়ার আগে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ। ব্যাটিংয়ে নামা ওয়েস্ট ইন্ডিজের শুরুটা ধীরগতির হলেও সময় গড়ানোর সঙ্গে খোলস  ছেড়ে  বের হন দুই ওপেনার শাই হোপ ও সুনিল অ্যামব্রিস। তাদের প্রতিরোধ ভাঙতে পারেনি বাংলাদেশ। সকাল থেকেই ডাবলিনের আকাশ ছিল মেঘে ঢাকা। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংসের ২১তম ওভারে ডাবলিনের মালাহাইডে নেমেছে বৃষ্টি। তাতে বাংলাদেশ সময় বিকেল সোয়া পাঁচটার (স্থানীয় সময় দুপুর সোয়া বারোটা) দিকে বন্ধ হয়ে যায় খেলা।  উইকেট ত্রিপলে ঢেকে রাখা হয়। এদিকে চলছে বৃষ্টির লুকোচুরি। ডাবলিনে দুই ঘণ্টার বেশি সময় পর থেমেছিল বৃষ্টি। স্থানীয় সময় বিকেল তিনটার একটু আগে মাঠ পর্যবেক্ষণ করতে  নেমেছিলেন আম্পায়াররা। কিন্তু এরপরই আবার বৃষ্টি নামে ডাবলিনে। উইকেট ত্রিপলে ঢাকা হয়। এশিয়া কাপ ও ত্রিদেশীয় সিরিজ মিলিয়ে এর আগে যে ৬টি ফাইনাল খেলেছে বাংলাদেশ। প্রতিবারই মাঠ ছাড়তে হয়েছে হার নিয়ে। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে এটা বাংলাদেশের সপ্তম ফাইনাল। এই টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ শুরু থেকেই দাপট দেখাচ্ছে। অপরাজিত থেকে ফাইনালে উঠেছে তারা। ফাইনালের পথে ও ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়েছে দুইবার। আয়ারল্যান্ডকে একবার। দলটির সাথে প্রথম ম্যাচ বৃষ্টিতে ভেস্তে গিয়েছিল। তবে ফাইনালে বাংলাদেশের জন্য বড় ধাক্কা সাকিব আল হাসানের অনুপস্থিতি। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে পিঠে চোট পেয়ে মাঠের বাইরে চলে যেতে হয় তাকে। যদিও চোট খুব একটা গুরুতর নয়, তবু দলের সহ অধিনায়ককে পাচ্ছেন না টাইগার বাহিনী। এ নিয়ে টানা ৩ ফাইনালে সাকিবকে ছাড়া মাঠে নামছে বাংলাদেশ। আয়ারল্যান্ডকে হারানো ম্যাচ থেকে বাংলাদেশ দলে চারটি পরিবর্তন এসেছে। দলে ঢুকেছেন  সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ মিথুন, মেহেদী হাসান মিরাজ ও  মোস্তাফিজুর রহমান। চোটের কারণে  নেই সাকিব আল হাসান। বাদ পড়েছেন রুবেল হোসেন, আবু জায়েদ রাহী ও লিটন দাস।

বাংলাদেশের একাদশ:

তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ,  মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, সাব্বির রহমান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মেহেদী হাসান মিরাজ, মাশরাফি বিন মর্তুজা ও  মোস্তফিজুর রহমান।

উইন্ডিজ একাদশ: শাই হোপ, সুনিল অ্যামব্রিস, ড্যারেন ব্রাভো, রোস্টন চেজ, জোনাথান কার্টার, জেসন হোল্ডার, ফাবিয়ান অ্যালেন, অ্যাশলে নার্স, কেমার রোচ, শ্যানন গ্যাব্রিয়েল ও রামোন রেইফার।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ