শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

মায়ের রাখা নাম

রহিমা আক্তার মৌ : ছোট বন্ধুরা আজকে তোমাদেরকে নতুন এক বন্ধুর গল্প বলবো। এ গল্পটা আগে তোমরা যেমন শুনোনি, আমিও কাউকে বলিনি। শুধু তোমাদেরকে নয় এই বন্ধুর গল্প কাউকেই বলা হয়নি, তাহলে গল্পটা শুরু করি --

নতুন বন্ধুর নাম আসমা, এ নামটা রেখেছে ওর মা সেতারা বেগম। নামটা এমনি এমনি রাখতে পারেনি কিন্তু। আসমা সেতারা বেগমের ২য় সন্তান। ও যখন মায়ের গর্ভে তখন তাদের পরিবারের সবাই থাকতো ঢাকা ক্যান্টনমেন্টর সরকারি কোয়াটারে। কারণ আসমার বাবা ছিলেন একজন সেনা কর্মকর্তা। পাশের বাসার একটা মেয়ের নাম ছিলো আসমা। সেই আসমাদের বাসার সবাই যখন ওকে নাম ধরে ডাক দিতো, ডাক শুনে সেতারা বেগমের খুব ভালো লাগতো। তখনি তিনি ঠিক করেন যদি এবার মেয়ে হয় নাম রাখবেন আসমা। 

সেতারা বেগম যখন একা থাকতেন তখন চুপে চুপে পেটে হাত দিয়ে ওকে আসমা বলে ডাক দিতেন। আর ওর সাথে অনেক গল্প করতেন। কিন্তু ভাবনায় থাকতেন নামটা নিয়ে। এখনতো অনেকেই সন্তান জন্মের আগেই নাম ঠিক করে রাখেন, কিন্তু তখন কেউ এমন করতো না। তার উপর যার সন্তান হবে তিনি নাম রাখবেন এটা তো হতোই না। সেতারা ভাবেন তাহলে কি মেয়ে হলে নাম আসমা রাখতে পারবেন না। মনে মনে ভাবতে ভাবতে বুদ্ধি এলো, ছোট ভাই রাসেলকে ডেকে ওর সাথে বিষয়টা বললেন। আরো বললেন - 

-- যদি আমার মেয়ে হয়, তখন সবাই তো নাম খুঁজবে, তুই বলবি নাম রাখতে চাস আসমা। তখন তোর পরে আমিও বলবো এই নামটাই রাখতে।

এর মাঝে ওরা ঢাকা থেকে কুমিল্লা ময়নামতি ক্যান্টনমেন্টে চলে গেলেন। আল্লাহর রহমতে সেতারার মেয়ে হলো, বাসার বড়রা নাম রাখার জন্যে আলোচনা করছে। আলোচনার মাঝে রাসেল এসে উপস্থিত। সে হঠাৎ বলে বসলো -

-- আমি নতুন বাবুর জন্যে নাম ঠিক করেছি। 

বড়রা সবাই ওর দিকে হা করে তাকিয়ে আছে। একজন বললেন -

-- তুমি এখানে কেনো, এখানে সবাই বড়রা, যাও তুমি নিজের কাজে।

অন্য একজন বললেন - 

-- তুমি ছোট মানুষ, নিজের কাজে যাও। নাম ঠিক করা বড়দের কাজ।

অন্য একজন বললেন-

-- আচ্ছা ও কি নাম বলতে চায়, আমরা শুনতে তো পারি। বলো রাসেল তুমি কি নাম ঠিক করেছো নতুন বাবুর।

-- আমি ঠিক করেছি নতুন বাবুর নাম হবে আসমা।

শুরু হলো নাম নিয়ে আলোচনা, নামের অর্থ কি বা কোথায় শুনেছে এ নাম। ঠিক সে সময়ে ভেতরের রুম থেকে বেরিয়ে আসে সেতারা বেগম। কিছু বলার জন্যে অনুমতি চায়। 

আব্বা আম্মা, রাসেল যখন এই নামটা রাখতে চায় রাখুক, নামটা অনেক সুন্দর। আমার কাছেও ভালো লেগেছে।

তখন সবাই ভেবে দেখলো নামটা সুন্দর রাখা যেতে পারে। এরপর সবাই ঠিক করলো নতুন বাবুর নাম আসমা রাখা হবে।

মাসখানেক এর মাথায় আকিকা দিয়ে ওর নাম ঠিক করা হলো। সবাই যখন নতুন বাবুকে আসমা বলে ডাক দেয় সেতারার তখন খুব আনন্দ হয়। রাসেল এসে সেতারা বুবুকে বলে--

-- এবার আমার পুরস্কার দাও, আমি বলেছি বলেইতো আসমা নাম রাখা হয়েছে।

-- তোর পুরস্কার হলো, আসমা বড় হলে ওকে বলবো নামটা তুই রেখেছিস। কি রাসেল পুরস্কার পেয়ে খুশিতো।

-- বুবু তুমি এতো চালাক হলে কি করে, আমি পুরস্কার চাই চাইইইইই।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ