শুক্রবার ০৫ জুন ২০২০
Online Edition

বেলকুচিতে গৃহবধূকে ছুরিকাঘাত করে স্বামীর পলায়ন

বেলকুচি (সিরাজগঞ্জ) সংবাদদাদতা : সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে গৃহবধূকে ভাড়াটিয়া বাসায় ছুরিকাঘাত করে পালিয়েছে স্বামী।
শুক্রবার দুপুরে বেলকুচি পৌর এলাকার চরচালা গ্রামে হাজী লুৎফর রহমানের ভাড়াটিয়া রুপা খাতুন (৩০) নামের এক গৃহবধূকে ছুড়িকাঘাত করে রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায় ঘাতক স্বামী বুদ্দু মিয়া।
স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, ঘাতক স্বামী বুদ্দু মিয়া উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের তেয়াশিয়া গ্রামের মৃত হানিফ খলিফার ছেলে। গুরতর আহত রুপা খাতুন বেলকুচি পৌর এলাকার বেড়াখারুয়া গ্রামের ইসমাইল হোসেন তালুকদারের মেয়ে।
প্রতিবেশীরা জানায়, শক্রবার দুপুরে বুদ্দু মিয়া ও তার স্ত্রী রুপা তাদের ভাড়াটিয়া বাসার রুমে প্রবেশ করেন। দুপুরের সময় সবাই যখন নামাজে যাচ্ছে ঠিক ঐ সময়ে বুদ্দু স্ত্রীকে ধারালো অস্ত্র নিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে পালিয়ে যায়। রুপাকে উদ্ধার করে বেলকুচি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নেওয়া হয়। আবস্থার অবনতি দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা হসপিটালে স্থানান্তরিত করেন। সেখান থেকে রুপাকে বগুড়া শহিদ জিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
 বেলকুচি থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম জানান, আমি খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। তবে এ পর্যন্ত কেউ অভিযোগ দিতে আসেনি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
গ্রেফতার : প্রতারণা মামলার আসামী আনোয়ার হোসেন তুহিন (৩৫)কে রায়গঞ্জ থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে তুহিনকে রায়গঞ্জ থানার তবারিপাড়ার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে। সে ঐ গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে।
 বেলকুচি থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম জানান, বেলকুচির কাপড় ব্যবসায়ী রিপন সরকারের নিকট থেকে প্রায় দুই বছর পূর্বে ৬ লাখ টাকার কাপড় ক্রয়করে চলে যায় তুহিন। সে সময়মতো টাকা পরিশোধ না করায় তার বিরুদ্ধে পাওনাদার মামলা করেন। পরে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে তার অবস্থান শনাক্ত করার পর বৃহস্প্রতিবার রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।শুক্রবার তুহিনকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ