সোমবার ০৩ আগস্ট ২০২০
Online Edition

রমজানের আগে মজুমদারীতে পানির সমস্যা সমাধান হবে -মেয়র

সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী  বলেছেন, যেভাবেই হোক রমজানের আগে মজুমদারীর পানির সমস্যা সমাধান হবে এটা আমি নিজেই মনিটরিং করব। ডাসমিনের যদি সত্যিকার জায়গা থাকে একটি জিনিষ খেয়াল করেছি  বিমান বন্দর থেকে আম্বরখানা পর্যন্ত নতুন একটা উদ্যোগ আছে সেখানে চার লাইনের রাস্তা হবে। এই চার লাইনের রাস্তার মোটামুটি প্রায় সব প্রস্তুতি শেষ। রমজানের আগে নতুন করে কোনো কাজ করব না। রমজানের পরে সব কাজ সম্পন্ন করব। এই এলাকার ড্রেইনের পানি কোন দিকে যাবে সেটা নিয়ে কাউন্সিলরের সাথে বসে আলোচনা করে ঈদের পরে এটার সমস্যা সমাধান করব। ডাস্টবিনের জায়গা যদি অবৈধভাবে থাকে ২৪ ঘন্টার ভিতরে এটি পরিষ্কার করব। মনে করি সব কিছুর একটা পরির্বতন হওয়া দরকার। আপনারা যদি এগিয়ে আসেন তাহলে আমার সাধ্যমত চেষ্টা করব। ট্রাকের সমস্যাটা আমার দ্বারা সম্ভব না, যতক্ষণ পর্যন্ত বিমান বন্দর বাইপাস রোড হইতে বাধাঘাট রাস্তার সম্পন্ন হবে না ততক্ষণ পর্যন্ত ট্রাকের সমস্যা সমাধান করা যাবে না। এই এলাকার কোনাপাড়ার রাস্তায় যদি আইনগত কোনো অসুবিধা না হয় তাহলে সবার আগে সংস্কার করা হবে, এই এলাকার গলি দেখলে মনে হয় লাশ নিয়ে বের হওয়ার কোনো পথ নেই। রমজান মাস পরে এই রাস্তার সাথে ডেইনের কাজ সম্পন্ন হবে। মজুমদারীতে মালিকানায় দিঘী যে ভাবে ভরাট করা হচ্ছে তা পরিবেশের জন্য দূষিত এবং এলাকার সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। এই দিঘীর মালিকানা যারা আছেন  আমি তাদের সাথে আলোচনা করে তাদের সহযোগিতা নিব এবং ঈদের পরে আশা করি তারাও একমত পোষন করবেন এবং এই দিঘী পূর্নখনন হয়ে সুন্দর পরিবেশ সৃষ্টি হবে। মজুমদার বাড়ীর ঐতিহ্য আছে সিলেটের মধ্যে মজুমদার বাড়ী সম্মানিত একটি প্রতিষ্ঠিত বাড়ী। মজুমদারী পঞ্চায়েত সমিতি উদ্যোগে বৃহত্তর মজুমদারী পঞ্চায়েত সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। মজুমদারী পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি হাজী মোস্তফা কামালের সভাপতিত্বে ও পাঞ্চায়েত সমিতির সহ সাধারণ সম্পাদক বজলুর রহমান এবং শিক্ষা সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক শামীম মজুমদারের যৌথ পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ৪নং ওয়ার্ডেও সাবেক প্যানেল মেয়র কাউন্সিলর রেজাউল হাসান কয়েস লোদী। স্বাগত বক্তব্য সমিতির সাধারণ সম্পাদক হাজী আব্দুস সত্তার, প্রচার সম্পাদক আকরার বখত মজুমদার। অন্যান্যোর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, এবিএম সাদেক জুনেদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মালেক, সৈয়দ বদরুল হক, সৈয়দ ছদরুল হক, আব্দুস শহিদ জুন্নোন মজুমদার পল্লু, ফয়েজ খান পেয়ারা, ফারুক আলী, ইদ্রিস মিয়া, জাবের আহমদ চৌধুরী, সেলিম খান, জুবায়ের আহমদ, হিফজুর রহমান মাসুম, মুছাদ্দিক খান, রিয়াজ আহমদ, মুহিবুর রহমান মুন্না প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ