শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

বিএনপি ঐক্যফ্রন্ট না ছাড়লে ২০ দল ছাড়বে লেবার পার্টি

স্টাফ রিপোর্টার : আগামী ২৩ তারিখ পর্যন্ত বিএনপিকে ঐক্যফ্রন্ট ছাড়ার আল্টিমেটাম দিয়েছেন ২০ দলীয়  জোটের শরিক বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান। এ সময়ের মধ্যে বিএনপি ঐক্যফ্রন্ট না ছাড়লে লেবার পার্টি ২৪ তারিখে ২০ দলীয় জোট ছাড়ার আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্ত জানাবে বলে জানান তিনি। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন তিনি।
ইরান বলেন, ২৩ তারিখ পর্যন্ত ঐক্যফ্রন্ট ছাড়ার জন্য বিএনপিকে আল্টিমেটাম দিয়েছি। গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন, জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী সরকারের একটা মিশন নিয়ে এসেছেন ঐক্যফ্রন্টে। ঐক্যফ্রন্ট তার লক্ষ্য-উদ্দেশ্য পূরণে সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। সরকারের এজেন্ডা নিয়েই তারা কাজ করছে। এ কারণে বিএনপিকে ঐক্যফ্রন্ট ছাড়তে হবে। যার কারণে বিএনপিকে ড. কামালদের ছাড়তে হবে।
তিনি বলেন, ‘ঐক্যফ্রন্ট ছাড়তে হবে, বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য যথাযথ পদক্ষেপ নিতে হবে। দেড় বছর যাবত খালেদা জিয়া কারাবন্দী, তার জন্য যথাযথ কর্মসূচি দিচ্ছে না। বিএনপি নেতৃবৃন্দ খালেদা জিয়ার মুক্তির ব্যাপারে কতটা আন্তরিক তা নিয়েও জনমনে প্রশ্ন উঠেছে।
ইরান বলেন, আমরা বিএনপিকে আল্টিমেটাম দিয়েছি ২৩ তারিখ পর্যন্ত। ২৪ তারিখে আমরা সাংবাদিকদের মুখোমুখি হবো, প্রেস কনফারেন্স করবো, সেখানে আমরা আমাদের অবস্থান ক্লিয়ার করবো। তিনি বলেন, আমাদের বিশ্বাস বিএনপি জনগণের সাথে থাকবে, বিএনপি এদেশের গণমানুষের দল এবং বেগম খালেদা জিয়া হচ্ছেন জাতীয়তাবাদী শক্তির মূর্ত প্রতীক। বাংলাদেশের গণতন্ত্র এবং ভবিষ্যতই হচ্ছেন বেগম খালেদা জিয়া।
ইরান আরো বলেন, বিএনপি দল এবং জোট পরিচালনায় চরমভাবে ব্যর্থ এটা পরিষ্কার। আমরা ২০ দলীয় জোটকে কার্যকর রাখতে চাই। ২০ দলীয় জোট আমাদের রক্তের ওপর দিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এই জোটের কারণে আমি ৫ বার গ্রেফতার হয়েছি। যুবলীগের হামলার শিকার হয়েছি। লাখ লাখ নেতাকর্মী হামলা মামলা গুম খুন অপহরণের শিকার হয়েছে। ২০ দলীয় জোটই আন্দোলন-সংগ্রামের পরীক্ষিত জোট। পরিকল্পিত ষড়যন্ত্রের কারণে জোটকে বাইরে রাখা হয়েছে। আওয়ামী লীগের একটা এজেন্ডা হচ্ছে এই ঐক্যফ্রন্ট।
বিএনপি বিশ্বাসঘাতকতা করেছে মন্তব্য করে ২০ দলের এই শরিক নেতা বলেন, বিএনপি সংসদে গিয়ে জনগণের সাথে জোটের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। জোট এবং ফ্রন্টের সিদ্ধান্তই ছিল সংসদে না যাওয়া। এটা তারা সঠিক কাজ করে নাই। একদিকে নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করবো আরেক দিকে সংসদে যাব! তাহলে তো ওই সংসদকে বৈধতা দেওয়া হয়। নতুন নির্বাচনের আমাদের দাবি থাকে কোথায়? নতুন নির্বাচন চাই, আমরা বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই।
এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, শুধু আমার দল নয়, আমি যদি ২০ দলীয় জোটে না থাকি তাহলে আরো অন্তত ৪ থেকে ৫টি দল এই জোট থেকে বেরিয়ে যাবে।
উল্লেখ্য, ২০ দলীয় জোটে ভাঙন দেখা দিয়েছে। এর আগে সোমবার এই জোটের অন্যতম শরিক বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি (বিজেপি) এ জোট থেকে বের হওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। দলটির চেয়ারম্যান আন্দালিব রহমান পার্থ স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ