রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

এপ্রিলে ১৯৭টি হত্যাকাণ্ড ঘটেছে

স্টাফ রিপোর্টার : চলতি বছরের এপ্রিল মাসে সারা দেশে মোট ১৯৭টি হত্যাকাণ্ডের ঘটনা সংঘটিত হয়েছে। বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের বিভিন্ন জেলা, উপজেলা ও পৌরসভার শাখা থেকে প্রাপ্ত তথ্য এবং বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের ভিত্তিতে বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস কমিশনের (বিএইচআরসি) ডকুমেন্টেশন বিভাগ অনুসন্ধান এবং ইন্টারন্যাশনাল হিউম্যান রাইটস কমিশনের (আইএইচআরসি) সহযোগিতায় জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে।
প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, এ ধরনের হত্যাকাণ্ড অবশ্যই আইন শৃংখলা পরিস্থিতির চরম অবনতি। কমিশন এই হত্যাকাণ্ডের হার ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। এপ্রিল ২০১৯ মাসে গড়ে প্রতিদিন হত্যাকাণ্ড ঘটেছে ৬ এর অধিক। আইন প্রয়োগকারী সংস্থা ও সরকারের সংশ্লিষ্ট দায়িত্বপ্রাপ্ত বিভাগের কর্মকর্তাদের অবশ্যই অধিক দায়িত্ববান হতে হবে। আইন প্রয়োগকারী সংস্থার গতিশীল কার্যক্রমের মাধ্যমে হত্যাকান্ড কমিয়ে শুন্যের কোঠায় নামিয়ে আনা সম্ভব। বাংলাদেশের গণতন্ত্র ব্যবস্থাপনাকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপদান এবং মানবাধিকার সম্মত সমাজ প্রতিষ্ঠা করতে হলে অবশ্যই সর্বস্তরে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা প্রয়োজন। আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমেই কেবলমাত্র এ ধরণের ক্রমবর্ধমান হত্যাকান্ড হ্রাস করা সম্ভব। সম্প্রতি শিশু নির্যাতন ও হত্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় গভীর উদ্ধেগ ও এ বিষয়ে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করতে সরকার ও আইন শৃংখলা বাহিনীর কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন।
বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের ডকুমেন্টেশন বিভাগের জরিপে দেখা যায়- এপ্রিলে যৌতুকের কারণে হত্যা হত্যাকান্ড ঘটেছে ৭। পারিবারিক সহিংসতায় হত্যা করা হয়েছে ৩০ জনকে। সামাজিক সহিংসতায় হত্যাকান্ডে ৬১। রাজনৈতিক কারণে হত্যা ৭। আইন শৃংখলা বাহিনীর হাতে হত্যা ২৭। বিএসএফ কর্তৃক হত্যা ২ জন। চিকিৎসকের অবহেলায় মৃত্যু ৬জন। অপহরণ করে হত্যা ৯ জন। গুপ্ত হত্যা ৭ জন। রহস্যজনক মৃত্যু ৩৫ জন। ধর্ষণের পর হত্যা ৪ জন। এসিড নিক্ষেপে হত্যা ২ জন।
এছাড়া বিভিন্ন দূর্ঘটনায় নিহত হয়েছে আরও ২৮২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে পরিবহন দুর্ঘটনায় মৃত্যু ২৫৯ জনের এবং আত্মহত্যা করেছে ২৩ জন।
এপ্রিলে কতিপয় উল্লেখযোগ্য নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। এরমধ্যে ধর্ষণের ঘটনা ৯৩টি। যৌন নির্যাতনের শিকার ৭ জন। যৌতুক কারণে নির্যাতনের ঘটনা ৬টি। এসিড নিক্ষেপের শিকার ২ জন। এ মাসে ২ জন সাংবাদিক নির্যাতনের শিকার হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ