শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

মহান মে দিবস আজ

ইবরাহীম খলিল : আজ পহেলা মে। মহান মে দিবস। ১৮৮৬ সালের এই দিনে যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো শহরে শ্রমের মর্যাদা, শ্রমের মূল্য এবং  দৈনিক আট ঘন্টা কাজের দাবিতে আন্দোলনে শ্রমিকেরা যে আত্মাহুতি দিয়েছিলেন তাদের আত্মত্যাগের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বিশ্বব্যাপী এ দিবসটি পালিত হয়।
বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও আজ বুধবার নানা আয়োজনের মহান মে দিবস পালন করা হবে। এ দিনটি ‘আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবস’ হিসেবেও সমধিক পরিচিত। এবার দিবসটির ১৩৩তম বার্ষিকী পালন হচ্ছে। এ দিনটি মাঠে-ঘাটে, কলকারখানায় খেটেখাওয়া শ্রমজীবী মানুষের অধিকার আদায়ে রক্তঝরা সংগ্রামের গৌরবময় ইতিহাস সৃষ্টির দিন। শ্রমজীবী মানুষের ন্যায্য অধিকার প্রতিষ্ঠার শপথের দিন আজ।
এবারের মে দিবসের প্রতিপাদ্য বিষয় ‘ শ্রমিক মালিক ঐক্যগড়ি .উন্নয়নের শপথ করি’। মহান মে দিবস শ্রমজীবী মানুষের অধিকার আদায়ের আলোকবর্তিকা।
এই দিনে শ্রমিক এবং মালিকের চেতনার জায়গাটি প্রসারিত হয়। পারস্পরিক সম্পর্ক আরো সুদৃঢ় হয়। শ্রমিক মালিকের সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক, সুষ্ঠু কর্মপরিবেশের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করে এ বছর মে দিবসের প্রতিপাদ্য নির্বাচন করা হয়েছে। শ্রমজীবী মানুষের অধিকার স্বার্থ ও কল্যাণের সাথে মহান মে দিবসের অন্তর্নিহিত তাৎপর্য ওতপ্রোতভাবে জড়িত। শোষণ, বঞ্চনা, লাঞ্ছনা থেকে মুক্তির দীপ্ত শপথে বিশ্বব্যাপী দিনটি পালিত হয়। দিনটি সরকারি ছুটির দিন। প্রতি বছরের ন্যায় এবারো শ্রমজীবী মেহনতি মানুষের অধিকার আদায়ের দিনে নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।
দিবসটি উপলক্ষে প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিএনপি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপার্সন তারেক রহমান এবং বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর মকবুল আহমাদসহ জাতীয় নেতৃবৃন্দ পৃথক পৃথক বাণী দিয়েছেন। বাণীতে তারা শ্রমজীবী মানুষসহ দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। এছাড়া বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের পক্ষ থেকেও বিবৃতি দেওয়া হয়েছে। সরকারি- বেসরকারি অফিস-আদালতের পাশাপাশি বাংলাদেশ ব্যাংকসহ সব তফসিলি ব্যাংক ও কলকারখানা বন্ধ থাকবে। বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বাংলাদেশ বেতারসহ বেসরকারি স্যাটেলাইট টেলিভিশন ও বেতারগুলো বিশেষ অনুষ্ঠানমালা প্রচার এবং সংবাদপত্রগুলো বিশেষ ক্রোড়পত্র ও নিবন্ধ প্রকাশ করবে।
দিবসটি উপলক্ষে ঢাকার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়কদ্বীপ সজ্জিতকরণ এবং দিবসটির গুরুত্ব তুলে ধরে স্মরণিকা প্রকাশিত হবে। দ্বিতীয় দিন বিকাল ৩ টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘কর্মক্ষেত্রে শ্রমিকদের অধিকার ও সুরক্ষা প্রতিষ্ঠায় মালিক-শ্রমিক ও সরকারের ভূমিকা ’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে।
মর্যাদাপূর্ণ এ দিবসটি যথাযথভাবে পালনের লক্ষ্যে জাতীয় কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় এবং এর আওতাধীন দফতর ও পরিদফতর কর্তৃক সকাল ৭টায় বর্ণাঢ্য এক র‌্যালি বের করবে।
র‌্যালিটি শ্রম ভবনের সম্মুখ থেকে শুরু করে রাজউক , বঙ্গবন্ধু এভিনিউ ও জিরো পয়েন্ট ধরে সচিবালয়ের সামনের সড়ক দিয়ে দৈনিক বাংলার মোড় হয়ে বায়তুল মোকাররমের উত্তর দিক দিয়ে পল্টন মোড় হয়ে সোজা প্রেস ক্লাব গিয়ে শেষ হবে। এছাড়াও দিবসটি পালনে আজ বিকাল ৪টায় বঙ্গবন্ধু অন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। বিএনপির পক্ষ থেকেও মে দিবসের র‌্যালি বের করা হবে।  নেতৃত্ব দেবেন মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
এদিকে দিবসটি উপলক্ষে জাতীয় শ্রমিক লীগ, জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল, জাতীয় শ্রমিক জোট, ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র, জাতীয় পার্টি, বাংলাদেশ ওয়ার্কাস পার্টি, সিপিবি, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন, জাসদ, গণফোরাম, ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি, গৃহশ্রমিক অধিকার প্রতিষ্ঠা নেটওয়ার্ক, ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়ন (ইনসাব), ঢাকা মহানগর প্রিন্টিং বাইন্ডিং শ্রমিক ইউনিয়ন ও পোশাক শিল্পে কর্মরত শ্রমিকদের বিভিন্ন সংগঠন পৃথকভাবে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।
বিভিন্ন জেলায় মহান মে দিবস যথাযথ মর্যাদায় উদযাপনের জন্য জেলা প্রশাসকদের নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ