সোমবার ১০ আগস্ট ২০২০
Online Edition

খুলনায় বাড়ছে গরম বাড়ছে ডায়রিয়া

 খুলনা অফিস : এপ্রিলের শুরুতেই তাপমাত্রা বেড়েছে। বাংলা নতুন বছরের আগের দিন (১৩ এপ্রিল) হতে তাপমাত্রা ২৫ থেকে ৩৫ ডিগ্রি পর্যন্ত ওঠা-নামা করছে খুলনায়। মাঝে মাঝে কালবৈশাখী ঝড় হলেও তীব্র রোদ ও ভ্যাবসা গরম কমছে না। এই গরম সহ্য করতে পারছে না শিশু ও বয়স্করা। ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে যেতে হচ্ছে তাদের।

খুলনা শিশু হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গত ১৫ দিনে ২১০ জন শিশু ডায়ারিয়ার চিকিৎসা নিয়েছে। পাশাপাশি নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়েছে ভর্তি হয়েছে ৮৫ শিশু। ১৪ এপ্রিল থেকে ডায়ারিয়া আক্রান্ত শিশুর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। খুলনা শিশু হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. সৈয়দ ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, ‘পহেলা বৈশাখের পর থেকে ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়া আক্রান্ত শিশুর সংখ্যা বেড়েছে। বাইরের রোদে ঘোরাঘুরি ও খাওয়ার কারণে ডায়ারিয়া আক্রান্ত বেড়েছে। এছাড়া গরমের ঘাম শরীরের মধ্যে বসে গিয়ে শিশুরা শ্বাসকষ্টসহ নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে।’  ছয় মাসের বেশি বয়সী ডায়ারিয়া আক্রান্ত শিশুদের মায়ের বুকের দুধের পাশাপাশি ওরস্যালাইন, রাইস স্যালাইন, দেশীয় মাছ, কাঁচকলা ভর্তা, থানকুনি পাতার রস, ডাবের পানি খাওয়ানোর পরমার্শ দিয়েছেন চিকিৎসক। প্রয়োজন ছাড়া গরমে শিশুদের বাইরে বের না করা এবং বাইরের খাবার না খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন ডা. ইমতিয়াজ। খুলনা আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমিরুল আজাদ বলেন, বর্তমানে তাপমাত্রা পারদের মতো ওঠা-নামা করছে। গত ১৩ এপ্রিল খুলনায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিলো ৩৫ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিলো ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এখন পর্যন্ত মোটামুটি একইরকমভাবে তাপমাত্রা ওঠানামা করছে বলেও জানান তিনি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ