শুক্রবার ২৭ নবেম্বর ২০২০
Online Edition

সাফের সেমিফাইনালে আজ ভারতের মুখোমুখি বাংলাদেশের মেয়েরা

স্পোর্টস রিপোর্টার : সাফ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের সেমিফাইনালে সাবেক চ্যাম্পিয়ন ভারতের বিপক্ষে জয়ের লক্ষ্য নিয়ে খেলবে বাংলাদেশের মেয়েরা। ভারতের বিপক্ষে নয়টি ম্যাচ খেললেও কোনো জয় পায়নি সাবিনারা। আটটি ম্যাচে  হারলেও একটি ম্যাচে ড্র রয়েছে কোচ গোলাম রাব্বানী ছোটনের শিষ্যদের।বাংলাদেশের ওপর ভারতের আধিপত্য বোঝাতে পরিসংখ্যানটুকুই যথেষ্ট। তবে মেয়েদের সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের চারবারের সেরাদের শক্তিশালী মানলেও কৃষ্ণা-স্বপ্নারা প্রত্যয়ী কণ্ঠে জানালেন পরিসংখ্যানের পাতায় একটি জয় লেখার মতো আত্মবিশ্বাস আছে তাদের।নেপালের বিরাটনগরের শহীদ রঙ্গসালা স্টেডিয়ামে আজ বুধবার স্থানীয় সময় বেলা ৩টায় ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে দুই দল। ৬-০ আর ৫-০ গোলের জয় নিয়ে ‘বি’ গ্রুপের সেরা হয়ে সেমি-ফাইনালে উঠে এসেছে ভারত। ২-০ গোলের জয় দিয়ে শুরু করা বাংলাদেশে নেপালের কাছে ৩-০ গোলে হেরে হয়েছিল ‘এ’ গ্রুপের রানার্সআপ।

গত নভেম্বরে শেষ দেখায় অলিম্পিকের বাছাইয়ে ভারতের কাছে ৭-১ গোলে হেরেছিল বাংলাদেশ। তবে প্রতিপক্ষকে শক্তিশালী মানলেও হাঁটুর চোট কাটিয়ে ফেরা মিডফিল্ডার কৃষ্ণা রানী সরকার জানালেন ফাইনালে উঠতে প্রাণবাজি রেখে লড়বেন তারা।“ভারত অবশ্যই কঠিন দল। সাফে ২ বছর আগে আমরা দু’বার ওদের সঙ্গে খেলেছি। প্রথম ম্যাচ ড্র করেছিলাম। দ্বিতীয় ম্যাচ যদিও হেরেছিলাম। কিন্তু লড়াই হয়েছিল অনেক। আমরা একচেটিয়া খেলেছিলাম। ওখানকার প্রায় সব খেলোয়াড়ই এই দলে আছে। আশা করি ওই ম্যাচের মতো এ ম্যাচেও অনেক লড়াই হবে।”

“ভারতকে হারানোর বিশ্বাস আমাদের আছে। অবশ্যই চেষ্টা করবো জেতার জন্য। গত দুই ম্যাচ খেলেনি, সেহেতু সেমি-ফাইনালে আমি আমার সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করবো। জানবাজি দিয়ে খেলবো আমরা।মিয়ানমারে অলিম্পিক বাছাইয়ে হারা ম্যাচে বাংলাদেশের জালে চার গোল করেছিলেন বালা দেবী, দুটি কমলা দেবী। অভিজ্ঞ এই দুই ফরোয়ার্ডকে ছাড়াই সাফের মুকুট ধরে রাখার মিশনে এসেছে ভারত। বালা-কমলা না থাকলেও ভারতকে খাটো করে দেখছেন কৃষ্ণা। ১৬ বছর বয়সী এই মিডফিল্ডার।ওদের দলে দু’জন সিনিয়র খেলোয়াড় (বালা ও কমলা) নেই। কিন্তু ‘এ’ দল থেকে আরও কিছু সিনিয়র প্লেয়ার এসেছে। ওদের সাথেও আমরা খেলেছি। ওরাও ভালো। আমাদের চেষ্টা করতে হবে ওদেরকে আটকানোর।”

বিরাটনগরের দিল্লি পাবলিক স্কুল মাঠে অনুশীলনের পর সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে ফরোয়ার্ড সিরাত জাহান স্বপ্না জানালেন বাড়তি চাপ অনুভব না করার কথা। অতীত অভিজ্ঞতা থেকে দিলেন সমানতালে লড়াইয়ের প্রতিশ্রুতি।“যেহেতু সেমি-ফাইনাল ম্যাচ, অবশ্যই আমাদের প্রস্তুতিও অন্যরকম। সর্বোচ্চটুকু দিয়ে খেলব। যে ম্যাচ চলে গেছে, সেটা চলে গেছে। এখন আমরা শুধু ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ নিয়ে ভাবছি।অবশ্যই তারা ভালো দল কিন্তু আমরা তেমন চাপ অনুভব করছি না। আমরা চেষ্টা করব আমাদের সর্বোচ্চটা দিয়ে খেলার। ভারতের সঙ্গে আমরা এই প্রথম খেলছি না। সর্বোচ্চ চেষ্টা থাকবে ভারতের বিপক্ষে সমানতালে খেলার।”

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ