মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

মাতৃভাষার বিকৃতি রোধে সকলকে সচেতন থাকতে হবে

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির’র কেন্দ্রীয় কার্যকরী পরিষদ সদস্য ও চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর সভাপতি আ স ম রায়হান বলেন যে মায়ের ভাষা বাংলায় কথা বলার অধিকার ও মর্যাদা রক্ষার জন্যে তরুণ-যুবক ছাত্ররা জীবনবাজি রেখে রাজপথে নেমে পুলিশের গুলিতে আত্মদান করেছিল সেটি আজ কতিপয় পরশ্রীকাতরের নগ্ন থাবায় ক্ষত-বিক্ষত। তারা অতি চুুরতার সাথে ভাষার বিকৃতি কওে মায়ের ভাষাকে কলংকিত করে যাচ্ছে। বিকৃতিকারীরা জেনে বুঝে ভিন দেশী ভাষার সাথে আমার মায়ের ভাষার সংমিশ্রণ ঘটিয়ে এমন এক জগাখিচুড়ি ভাষার জন্ম দেয়ার অপচেষ্টা করছে যা শুনলেই প্রাণে শিহরণ ঝাগছে। সংখ্যা গরিষ্ঠের ভাষা বাংলাকে অন্যতম রাষ্ট্র ভাষার সরকারী স্বীকৃতি না দিয়ে তৎকালীন শাসক গোষ্ঠী আমাদেরকে স্থায়ীভাবে পরাধীন রাখার হীন মানসিকতায় পরিকল্পিতভাবে উর্দুকে রাষ্ট্র ভাষা হিসেবে চাপিয়ে দিতে চেয়েছিল। কিন্তু ছাত্র-জনতা বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দিয়ে তা প্রতিরোধ করে। ভাষার দাবিতে অগ্রজদের এই অসীম আত্মত্যাগের বিনিময়ে রচিত হয়েছে আমাদের জাতীয় মুক্তি আন্দোলনের প্রথম ধাপ। রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত হয়েছে প্রিয় স্বাধীনতা। প্রাণের বিনিময়ে অর্জিত মায়ের ভাষা যাতে কেউ বিকৃত করতে না পারে তার জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে সজাগ ও সচেতন হতে হবে। একই সাথে তিনি যারা বিকৃত করার অপচেষ্টায় লিপ্ত তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার জোর দাবী জানান। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর শিবিরের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি  বৃহস্পতিবার এসব কথা বলেন। নগর উত্তর সেক্রেটারী হাসান ইলাহী’র পরিচালনায় এতে শিবির নেতা এম ইউ হামীম, নোমান উর রশিদ, আশরাফুল আলম সহ অন্যান্যরা বক্তব্য রাখেন।
প্রধান অতিথি বলেন যে প্রাণের উচ্ছ্বাস ও আবেগের মধ্য দিয়ে বাংলা রাষ্ট্র ভাষার মর্যাদা পেয়েছিল সেই ভাষা আজ দূষণের শিকার এবং প্রতিনিয়ত ভূলুণ্ঠিত হচ্ছে একুশের চেতনা। মাতৃভাষায় হিন্দির আগ্রাসন সীমা অতিক্রম করেছে। বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতির গতিময়তার পথ রোধ করে দাঁড়িয়েছে বিদেশী ভাষা ও সংস্কৃতি। উচ্চবিত্ত পরিবারে এখন বাংলা অপাঙ্ক্তেয়। সমাজের সর্বত্র হিন্দুয়ানি সংস্কৃতির সয়লাব। এভাবে চলতে দিলে আরেকটি ভাষা আন্দোলন ছাড়া বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতিকে স্ব-মহিমা ও মর্যাদায় প্রতিষ্ঠিত করা প্রায় দূরহ হয়ে পড়বে। তিনি ভাষা-সংস্কৃতিকে আপন মহিমায় প্রতিষ্ঠার জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হবার আহ্বান জানান।
শিক্ষা উপকরণ বিতরণ : আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর’র উদ্যোগে গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করা হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নগর উত্তর সভাপতি আ স ম রায়হান বলেন ত্যাগের বিনিময়ে অর্জিত মহান ভাষার এই মাসে মাতৃভাষার শিক্ষা অর্জনে গরীব অসহায় খুদে শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়াতে সমাজের বিত্তবান লোকদের এগিয়ে আসার আহবান জানান। অর্থের অভাবে কোন শিক্ষার্থী যাতে শিক্ষা গ্রহণের মাঝ পথে ঝরে না পড়ে সেদিকে রাষ্ট্রের পাশাপাশি সকলকে সচেতন হবার অনুরোধ জানান।
নগর উত্তর সেক্রেটারী হাসান ইলাহী’র পরিচালনায় এতে শিবির নেতা এম ইউ হামীম, আশরাফুল আলম, জয়নাল আবেদীনসহ অন্যরাও উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে অতিথিবৃন্দ উপস্থিত অর্ধ শতাধিক গরীব শিক্ষার্থীদের মাঝে বই, খাতা, কলমসহ বিভিন্ন শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ