বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০
Online Edition

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আইনজীবীদের মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার : দেশের হাজার কোটি টাকা লুট হলেও অপরাধীদের ধরা হচ্ছে না। অথচ সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিচারের নামে প্রহসন চলছে। গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করতে গিয়ে তিনি আজ কারাবন্দী।
গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী (বার) সমিতির সভাপতির কক্ষের সামনে ‘গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়া মুক্তি আইনজীবী আন্দোলন’ আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তারা এ কথা বলেন। দুপুর ১টা থেকে ২টা পর্যন্ত ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভায় শতাধিক আইনজীবী অংশ নিয়ে অবিলম্বে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি এবং বিচার বিভাগের দুর্নীতি বন্ধের দাবিতে শ্লোগান দেন। 
বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুপ্রিম কোর্টসহ নিন্ম আদালতের সর্বস্তরের দুর্নীতি ও বিচার বিভাগের ওপর সরকারী হস্তক্ষেপ বন্ধের দাবিতে সংগঠনটি এ কর্মসূচি পালন করে। সংগঠনের সুপ্রিম কোর্ট ইউনিটের চেয়ারম্যান ও সুপ্রিম কোর্ট বারের সাবেক সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের চেয়ারম্যান তৈমূর আলম খন্দকার, মহাসচিব এবিএম রফিকুল হক তালুকদার রাজা, আইনজীবী গোলাম আরশেদ, কো-চেয়ারম্যান মনির হোসেন, আবেদ রাজা, মো: শহিদুল ইসলাম, ওয়াসেল উদ্দিন বাবু, যুগ্ম মহাসচিব আনিছুর রহমান খান, আহসান হাবিব রিটন, মর্জিনা আক্তার মদিনা, মো: হানিফা,  নাহিদ সুলতানা, কামাল হোসেন, আ. মতিন ম-ল নাছিরউদ্দিন খান স¤্রাট, ব্যারিস্টার আরিফুল ইসলাম, মোস্তফা কামাল, শামসুল ইসলাম মুকুল, শাহীন সুলতানা, শেখ তাহসিন আলী, শাহিদা আক্তার লাইলী, ফাতেমা ইয়াসমিন, শেখ আবদুস সালাম, আফসানা হক শুভ্রা, এমদাদুল হক বশির, নাজমুল হাসান, মো: মনির হোসেন, আবু হানিফা। অনুষ্ঠান পরিচালনায় যুক্ত ছিলেন সংগঠনের যুগ্ম মহাসচিব আইয়ুব আলী আশ্রাফী।
সভাপতির বক্তব্যে তৈমুর আলম খন্দকার বলেন, আমাদের শেষ কথা বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি। তার মুক্তি ছাড়া আমরা কোনো কথা বলতেও চাই শুনতেও চাইনা। তিনি সুপ্রিম কোর্টসহ সারা দেশের বিচার বিভাগের দুর্নীতি দূল করতে প্রধান বিচারপতির আহবান জানান।
গিয়াস উদ্দিন আহমেদ বলেন, দেশের মানুষ জানে ৩০ ডিসেম্বর কোনো নির্বাচন হয়নি। নির্বাচনের নামে যে জালিয়াতি হয়েছে তা নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে জাগরণ সৃষ্টি করতে পারলে আন্দোলন সফল হবে।
মনির হোসেন বলেন, দেশে গণতন্ত্র নেই। অবিলম্বে গণতন্ত্র ফিরিয়ে দিন। না হলে আপনারা ইতিহাসের আস্তাকুড়ে নিক্ষিপ্ত হবেন।
মানববন্ধন শেষে আইনজীবীদের একটি বিক্ষোভ মিছিল সুপ্রিম কোর্ট বার ভবন প্রদক্ষিণ করে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ