বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০
Online Edition

কুড়িয়ে পাওয়া কয়েক লাখ টাকা ফেরত দিয়ে ব্যাংক কর্মকর্তার দৃষ্টান্ত স্থাপন

নারায়ণগঞ্জ সংবাদাদাতা: কুড়িয়ে পাওয়া কয়েক লাখ টাকা থানায় পুলিশের জিম্মায় ফেরত দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন সারোয়ার জাহান নামে এক ব্যাংক কর্মকর্তা। সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে ঢাকায় অফিসের কাজ শেষে নারায়ণগঞ্জ ফেরার পথে ঢাকা-পাগলা-নারায়ণগঞ্জ সড়কের শ্যামপুরের ঢাকা ম্যাচ এলাকায় সিএনজি চালিত অটোরিকশায় কয়েক লাখ টাকা ভর্তি একটি ব্যাগ পান তিনি। পরে এই টাকার প্রকৃত মালিককে ফেরত দেওয়ার জন্য ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ্ মো. মঞ্জুর কাদেরের কাছে সেই টাকা বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি। এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়রি (জিডি) করা হয়েছে।

জানা গেছে, সারোয়ার জাহান সদর উপজেলার পাইকপাড়ার বাসিন্দা। তিনি ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেডের (ইউসিবি) নারায়ণগঞ্জ শাখার জুনিয়ার অফিসার হিসেবে কর্মরত আছেন। এ বিষয়ে ওই ব্যাংক কর্মকর্তা সারোয়ার বলেন, ঢাকায় অফিসের কাজ শেষ করে শ্যামপুরের ঢাকা ম্যাচ এলাকার সামনে থেকে নারায়ণগঞ্জের উদ্দেশ্যে সিএনজি অটোরিকশায় রওনা দেই। অটোরিকশায় উঠতেই সিটের পাশে একটি ব্যাগ রাখা দেখতে পাই। চালককে ব্যাগের কথা জিজ্ঞেস করলে সে জানায়, এই ব্যাগ তার নয়, হয়তো কোন যাত্রী ফেলে গেছে। 

ব্যাগ খুলে অনেকগুলো টাকা দেখতে পাই। একটি পাসপোর্টও পাওয়া যায় ব্যাগের ভেতর। টাকাভর্তি ব্যাগটির প্রকৃত মালিকের কাছে টাকা পৌছে দেয়ার উদ্দেশ্যে আমি ফতুল্লা মডেল থানার ওসি মঞ্জুর কাদেরের কাছে হস্তান্তর করি। এদিকে ওই সিএনজি চালক মো. সোহাগ জানান, সকাল  থেকে বিকেল পর্যন্ত অনেকেই সিএনজিতে উঠেছে।  কে টাকাভর্তি ব্যাগ ফেলে গেছে তা তার জানা নেই।

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ্ মো. মঞ্জুর কাদের বলেন, ব্যাগের ভেতর চার থেকে পাঁচ লাখ টাকা ও পাসপোর্টের ফটোকপি আছে।  কেউ বিদেশ যাবার উদ্দেশ্যে টাকা জমা দিতে যাচ্ছিলেন কিংবা ব্যাংক থেকে টাকা তুলেছিলেন পরে ভুল করে ফেলে গেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, সারোয়ার জাহান মহৎ মানুষ। 

যে এতোগুলো টাকা পেয়েও কোন লোভ না করে প্রকৃত মালিককে পৌঁছে দেওয়ার জন্য পুলিশের কাছে নিয়ে এসেছেন।

এ ঘটনায় থানায় একটি জিডি করা হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও গণমাধ্যমে প্রচারসহ পাসপোর্টের ঠিকানায় যোগাযোগ করে এই টাকার প্রকৃত মালিকের কাছে টাকা হস্তান্তরের চেষ্টা চলছে বলেও জানান ফতুল্লা থানার ওসি।

বিদ্যুৎহীন পরিবারকে সংযোগ দেয়া হবে : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার নুনেরটেকের এক হাজার বিদ্যুৎ সংযোগহীন পরিবারকে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু। 

সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে সোনারগাঁ আসনের এমপি লিয়াকত হোসেন খোকার এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী এ কথা বলেন। 

 প্রতিমন্ত্রী বলেন, সোনারগাঁ উপজেলার নুনেরটেক গ্রাম অফগ্রিড হওয়ায় ১ হাজার পরিবারকে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করা সম্ভব হয়নি। মেঘনা নদীর শাখা নদীর উপর দিয়ে টাওয়ার দ্বারা প্রায় ৯.৩০ কিলোমিটার লাইন নির্মাণ করে নুনেরটেক গ্রামের ১ হাজার পরিবারকে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করার লক্ষ্যে প্রকল্প গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। 

এমপি লিয়াকত হোসেন খোকা সংসদে বলেন, বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ (বিদ্যুৎ বিভাগ) মন্ত্রী মহোদয় অনুগ্রহ করিয়া বলিবেন কি, নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁ উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়িত এলাকা স্বত্ত্বেও নুনেরটেক এলাকায় বিদ্যুৎ নাই। ডিও দিয়েছিলাম, জেনেছি প্রক্রিয়াধীন আছে। কবে নাগাদ নুনেরটেক এলাকা বিদ্যুতায়িত করা হবে?

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ