মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

নোয়াখালীতে মাথা গোজার ঠাঁই হারাচ্ছে শতশত পরিবার

নোয়াখালী : সুবর্ণচরে বেড়িবাঁধ নির্মাণের জন্য ভূমি অধিগ্রহণের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত একটি পরিবার

সুবর্ণচরে বেড়িবাঁধ নির্মাণে ক্ষতিপূরণ পায়নি ক্ষতিগ্রস্তরা

নোয়াখালী সংবাদদাতা : নোয়াখালীর সুবর্ণচরে বেড়িবাঁধ নির্মাণের জন্য ভূমি অধিগ্রহণের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে শতশত ভূমিহীন পরিবারের একমাত্র বসত ভিটা। এখন পর্যন্ত ক্ষতিপূরণ না পাওয়ায় পরিবার পরিজন নিয়ে ভবিষ্যতের চিন্তায় দিশেহারা মেঘনা পারের শতশত পরিবার। ক্ষতিগ্রস্ত ভূমির মালিকরা দ্রুত সরকারের কাছে ক্ষতিপূরণ দাবী করছে। বরাদ্দ পেলে যথা সময়ে ক্ষতিগ্রস্ত ভূমি মালিকদের ক্ষতিপূরণ প্রদানের আশ্বাস দিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।  সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, উপজেলার দক্ষিণাঞ্চলের অধিবাসীদের নদী ভাঙ্গন ও প্রাকৃতিক জলোচ্ছ্বাস থেকে রক্ষা করতে নোয়াখালী পানি উন্নয়ন র্বোড সিডিএসপি প্রকল্প-৪ এর আওতায় নলের চর ও নাঙ্গলিয়ার চরে রিজার্ভ বেডিবাঁধ নির্মাণের উদ্যোগ নেয়। বেডিবাঁধ নির্মাণের জন্য যে ভূমির প্রয়োজন হয় তাও অধিগ্রহণকৃত ভূমিতে বেডিবাঁধ নির্মাণ প্রায় শেষ পর্যায়ে চলে এলেও এখনো ক্ষতিপূরণ পায়নি অধিগ্রহণের আওতায় ক্ষতিগ্রস্ত ভূমি মালিকরা। ক্ষতিগ্রস্ত ভূমির মালিকরা বার বার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে ধর্না দিয়েও কোন লাভ হচ্ছেনা। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, আমরা রাত-দিন অনেক কষ্ট করে, দস্যুদের অত্যাচার নির্যাতন সহ্য করে এই সম্পত্তি আগলে রেখেছি। অথচ আমাদের মাথা গোজার শেষ সম্বলটুকু বেড়িবাঁধে চলে যাচ্ছে। সরকার যেহেতু আমাদের জন্য বেড়িবাঁধ দিচ্ছে এখন হিসেব করে আমাদের ক্ষতিপূরণটা দিলেই আমরা পরিবার পরিজন নিয়ে বাঁচতে পারি। ভূমিহীন পরিবারগুলোর দাবী প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা ও অবহেলার কারণে তারা যথাসময়ে ক্ষতিপূরণ পাচ্ছেনা । নোয়াখালী পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন জানান, বেডিবাঁধ নির্মাণে অধিগ্রহণকৃত ক্ষতিগ্রস্ত ভূমি মালিকদের ক্ষতিপূরণ দেয়া হবে। বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ