রবিবার ০৯ আগস্ট ২০২০
Online Edition

খুলনার শহিদ হাদিস পার্কে দল বেঁধে ধূমপান করায় পরিবেশ সাংঘাতিকভাবে দূষিত

খুলনা অফিস : খুলনার ঐতিহ্যবাহী শহিদ হাদিস পার্কের অভ্যন্তরে ধূমপায়ীদের উপস্থিত আশঙ্কাজনকহারে বাড়ছে। বিশেষ করে সন্ধ্যায় যত্র তত্র অবাধে উঠতি বয়সী তরুণরা দল বেঁধে ধূমপান করায় পরিবেশ সাংঘাতিকভাবে দূষিত হচ্ছে। আর এতে বিরক্ত হচ্ছে পার্কে আগত দর্শনার্থীরা।

কর্পোরেশন সূত্রে জানা গেছে, নগরবাসীর অন্যতম বিনোদন কেন্দ্র ঐতিহ্যবাহী পার্কটির ও উন্নয়নের জন্য একটি প্রকল্প গ্রহণ করে কেসিসি। প্রকল্পটির কাজ শুরু করা হয় ২০১১ সালে। ৮ কোটি ৪১ লাখ ২৬ হাজার টাকা ব্যয়ে এ প্রকল্পের আওতায় পার্কের শহিদ মিনার প্লাজা নির্মাণসহ আরসিসি ওয়ার্ক, কলাম, বীম, ব্রীক, সিসি ওয়ার্ক কালার পেভিং ব্লক, টাইলস বসানো, আরসিসি বাউন্ডারী ওয়াল নির্মাণসহ সিরামিক ব্রিকস, এসএস পাইপের গ্রীল ও গেট করা, পার্কে অভ্যন্তরের পুকুরের চারপাশ রিটেইনিং আরসিসি ওয়াল নির্মাণ, শহিদ মিনার ও পুকুরের চারপাশে ওয়াকওয়ে নির্মাণ, পুকুরের উপরে ওয়াকওয়ে, শহিদ মিনার চত্বরে পাবলিক টয়লেট, ভূমি উন্নয়ন, পুকুরের মধ্যে ঝর্ণা নির্মাণ, মিনার চত্বরে ইলেকট্রিক সুইচ বক্সসহ ইলেকট্রিফিকেশ, প্লানটেশন ও বিউটিফিকেশনের কাজ ইত্যাদি উন্নয়ন করা হয়। এছাড়া বর্তমানে অভ্যন্তরে উঁচু পোলের বাতি স্থাপন করায় পার্ক জুড়ে আলো জলমল করছে। ফলে প্রতিদিন হাজারও দর্শনার্থীর আগমণ ঘটছে। বেশির ভাগ দর্শণার্থীর আসছে পরিবার পরিজন নিয়ে। কিন্তু সম্প্রতি পার্কের অভ্যন্তরে ধূমপায়ীদের উপস্থিত আশঙ্কাজনকহারে বেড়েছে। বিশেষ করে সন্ধ্যার পর উঠতি বয়সী তরুণরা দল বেঁধে যত্রতত্র ধূমপান করছে। এছাড়া অনেকে আবার ধূমপানের জন্য নিরাপদ স্থান হিসেবে পার্ককে বেঁচে নিচ্ছে। ফলে পরিবেশ সাংঘাতিকভাবে দূষিত হচ্ছে। আর এতে বিরক্ত হচ্ছে পার্কে আগত দর্শনার্থীরা।

পার্কের দর্শনার্থী মুক্তা, ফিনিক্স ও চমপা বলেন, শহরে বেড়াতে যাওয়ার ভালো কোন জায়গা নেই। তাই স্বামী ও ছেলে-মেয়ে নিয়ে পার্কে বেড়াতে এসেছেন। কিন্তু ওয়ার্কওয়ে দিয়ে হাঁটা যাচ্ছে না, কোথাও বসাও যাচ্ছে না। ধূমপায়ীরা হেঁটে হেঁটে, বসে, কোনায় দাঁড়িয়ে প্রকাশ্যে ধূমপান করছে। ফলে এর দুর্গন্ধে শিশুদের শ্বাস-প্রশ্বাসে প্রচন্ড কষ্ট হচ্ছে। আগুনে কাপড় নষ্ট হচ্ছে। পুরো পরিবেশ দূষিত হয়ে পড়ছে।এ ব্যাপারে সিটি কর্পোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মাসুম বিল্লাহ বলেন, এ ধরনের অভিযোগ এসেছে। খুব শিগগির হাদিস পার্কে অভিযান পরিচালনা করা হবে। পার্কের অভ্যন্তরে ধূমপান করে পরিবেশ দূষিত করা যাবে না।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ