মঙ্গলবার ২৬ মে ২০২০
Online Edition

কাজীপুরে ধানের বাম্পার ফলন দাম না থাকায় কৃষকরা হতাশ

কাজীপুরে কৃষকরা ধান কাটায় ব্যস্ত

 

কাজিপুর (সিরাজগঞ্জ) থেকে আব্দুল মজিদ : উত্তরাঞ্চলের শস্যভান্ডার বলে খ্যাত সিরাজগঞ্জের কাজীপুর উপজেলায় গত রোপা আমন মৌসুমে ধানের বাম্পার ফলন হলেও হাট বাজারে নতুন ধানের দাম কম হওয়ায় কৃষকের মুখে হাসি নেই। কাজীপুর উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে উপজেলার ১২ টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় ১০৫০ হেক্টর জমিতে আমন ধানের চাষ করা হয়েছিল। এই সব জমিতে বি আর ১১ ধান, স্বর্ণা ৫, গুটি স্বর্ণা, ৪৯ জাতের রোপা আমন ধানের চাষ করা হয়েছিল। কৃষকরা জানান ৩৩ শতকের প্রতি বিঘা জমিতে স্বর্ণা ৫ জাতের ধান প্রায়  ১৮/২০ মণ, গুটি স্বর্ণা প্রায় ২০/২২ মণ পর্যন্ত ফলন হয়েছে। গত কয়েক বছরের মধ্যে গত আমন মৌসুমে আবহাওয়ার অনুকূলে থাকায় রোপা আমন ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। ধানের বাম্পার ফলনে কৃষকরা মহাখুশি হলে ও বর্তমানে হাট বাজারে নতুন ধানের দাম কম হওয়ায় কৃষকের মুখে হাসি নেই। বিভিন্ন হাট-বাজারে ঘুরে দেখা গেছে আমন ধান মণ প্রতি গুটি স্বর্ণা ৬০০ টাকা, স্বর্ণা ৫ জাতের ধান মণ প্রতি ৬৮০ টাকা। আর পুরাতন বি আর ২৯ জাতের ধান ৭৫০  টাকা মন দরে বেচাকেনা চলছে। গান্ধাইল গ্রামের কৃষক ইউনুছ আলী ও বরইতলা গ্রামের কৃষক ফজলুর রহমান জানান বর্তমান বাজারে ধান বিক্রি করে উৎপাদন খরচ তোলা যাচ্ছে না। প্রতি বিঘা জমিতে রোপা আমন পরিচর্যা, কাটা, মড়াইসহ উৎপাদন খরচ হয় প্রায় ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা। বাজারে ধানের দাম তুলনামূলক কম থাকায় অনেক কৃষক ধান চাষের আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছে। উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় ও ধানের পোকার আক্রমণ কম থাকায় রোপা আমনের বাম্পার ফলন হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ