বৃহস্পতিবার ০১ অক্টোবর ২০২০
Online Edition

রাবি’তে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের বিরোধ এক নেতা ছুরিকাহত

রাজশাহী অফিস : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের এক নেতাকে ছুরিকাঘাত করেছে স্থানীয় কয়েক যুবক। এ ঘটনায় এক যুবককে আটকে রেখে মারধর করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। পরে পুলিশী পাহারায় তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। রোববার রাত ৮টার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের পাশে ছুরিকাঘাতের এ ঘটনা ঘটে।
রাত ৮ টার দিকে বঙ্গবন্ধু হলের পাশে দোকানে নাস্তা খাচ্ছিলেন সহ-সভাপতি গোলাম সারোয়ার ও ইমতিয়াজ। এ সময় বহিরাহত বেশ কয়েকজন এসে হঠাৎ ইমতিয়াজের গলায় ছুরি মেরে পালিয়ে যায়। পালানোর সময় রোমেলকে আটক করে বঙ্গবন্ধু হলের অতিথি কক্ষে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাকে প্রায় দুই ঘণ্টা আটকে রাখে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। এরপর রাত ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে পুলিশি নিরাপত্তায় তাকে বের করা হয়। তবুও রোমেলকে গাড়িতে তোলার সময় তার ওপর হামলা করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এ সময় ডিসি, এডিসি, ওসিও লাঞ্ছিত হন। এর আগে সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজলা গেটে মোটরসাইকেলে ধাক্কাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় যুবকের সঙ্গে বাকবিত-ায় জড়ান ইমতিয়াজ। একপর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনাও ঘটে। সে সময় বাঁধন নামে স্থানীয় এক যুবকের মাথা ফেটে যায়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে পরবর্তী সময়ে ইমতিয়াজের ওপর এ হামলা চালানো হয়।
ফেন্সিডিল উদ্ধার ॥ আটক ২
রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে গোবরের তৈরি খড়ি ভর্তি ভুটভুটি থেকে ১ হাজার ৫০০ বোতল ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব-৫ এর চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্প। আটককৃতরা হলেন, চাঁপাইনবাবঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার রওশন চক গ্রামের মৃত রজবুল আলীর ছেলে মসিদুল (২১) ও একই উপজেলার একবরপুর আইড়ামারি গ্রামের শামেদ আলীর ছেলে মাসুদ (২০)।
র‌্যাব-এর চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্পের অপারেশন দল অভিযান পরিচালনা করে গোদাগাড়ীর ডাইংপাড়া ফাজিলপুর এলাকায় থেকে তাদের আটক করা হয়। মাদক ব্যবসায়ীদ্বয় দীর্ঘদিন যাবৎ ফেনসিডিলসহ বিভিন্ন ধরনের মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত। জিজ্ঞাসাবাদে তারা মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ