শনিবার ০৪ জুলাই ২০২০
Online Edition

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সভা

নারায়ণগঞ্জ সংবাদদাতা, ১৫ জানুয়ারি : বৃটিশ বিরোধী আন্দোলনের মহানায়ক মাষ্টারদা সূর্য সেনের ৮৫তম ফাঁসি দিবসে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার উদ্যোগে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার বাসদ নারায়ণগঞ্জ জেলা কার্যালয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট জেলা সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসাইনের সভাপতিত্বে আলোচনা করেন, বাসদ নারায়ণগঞ্জ জেলা সমন্বয়ক নিখিল দাস, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট জেলার অর্থ সম্পাদক মুন্নি সরদার, সরকারি মহিলা কলেজের সভাপতি সানজিদা শান্ত, কদম রসুল কলেজের সংগঠক রাকিবুল হাসান রবিন, মাহাফুজুর রহমান প্রমুখ। নেতৃবৃন্দ বলেন, বৃটিশরা ভারতবর্ষ পৌনে দুইশত বছর শাসন করেছে। মাষ্টারদা সূর্যসেনের মতো বীর বিপ্লবীবীরদের আত্মদানের মধ্যে দিয়ে ভারতবর্ষ স্বাধীন হয়েছে। তিনি চট্টগ্রাম রিপাবলিকার আর্মি গঠন করে ১৯৩০ সালে চট্টগ্রামে বৃটিশ শাসনের বিরুদ্ধে যুব বিদ্রোহের নেতৃত্ব দেন। ১৯৩০ সালে ১৮ এপ্রিল থেকে ২২ এপিল পর্যন্ত চট্টগ্রামকে স্বাধীন করে রাখেন। ১৯৩৪ সালের ১২ জানুয়ারি বৃটিশ সরকার তাঁকে ফাঁসি দেন। মাষ্টারদা সূর্য সেনের মৃত্যু বৃটিশ বিরোধী আন্দোলনকে আরো বেগবান করে। এক সময় বৃটিশ শাসকরা লেজ গুটিয়ে পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়। বৃটিশ সা¤্রাজ্যবাদের বিরুদ্ধে একদিন মাষ্টারদা সূর্য সেন লড়াই করেছিল। অথচ আজকে বুর্জোয়া সরকারগুলো আমাদের দেশের সম্পদ তেল গ্যাস কয়লা সা¤্রাজ্যবাদী কোম্পানিগুলোর হাতে তুলে দিয়েছে। বৃটিশ শাসকরা যেমন সেদিন শোষণের স্বর্গরাাজ্য কায়েম করেছিল আজকে আমাদের দেশের শাসক বুর্জোয়া শ্রেণি জনগণের উপর শোষণ চালিয়ে যাচ্ছে। এমনকি জনগণকে তার ভোট দেয়ার অধিকার থেকেও বঞ্চিত করেছে। বুর্জোয়া শাসক গোষ্ঠী শিক্ষাকে ধনিক শ্রেণির বিলাসী পণ্যে রূপান্তরিত করেছে। তাই আজ মাষ্টারদা সূর্য সেনের জীবন সংগ্রাম থেকে শিক্ষা নিয়ে সকল প্রকার অন্যায় অত্যাচারের বিরুদ্ধে লড়াই গড়ে তোলার জন্য ছাত্র যুবসমাজের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান নেতৃবৃন্দ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ