শনিবার ০৪ জুলাই ২০২০
Online Edition

যশোরে অস্ত্র তৈরির কারখানা আবিষ্কার

চৌগাছা (যশোর) সংবাদদাতা : যশোরে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালিয়ে অস্ত্র তৈরির কারখানা আবিষ্কার করেছেন। উদ্ধার হয়েছে একটি দেশী পিস্তল, এক রাউন্ড গুলী, একটি গুলীর খোসা ও অস্ত্র তৈরির বিপুল সরঞ্জাম। অভিযানকালে অস্ত্র তৈরির কারিগর কামরুল ইসলাম ও তার অপর দুই সহযোগীকে আটক করা হয়। বুধবার দুপুর দুইটার দিকে শহরতলীর চাঁচড়া ইউনিয়নের ভাতুড়িয়া উত্তরপাড়ায় এই অভিযান চালনো হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাফিজুল হক ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মাদ জামশেদুল আলম বলেন, অভিযানকালে দেখা যায়, ভাতুড়িয়া উত্তরপাড়ার একটি একতলা বাড়ির পুব পাশের একটি গোপন কক্ষে কামরুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তি একটি দেশি পিস্তল নিয়ে নাড়াচাড়া করছেন। রুমের মধ্যে অস্ত্র তৈরির বিপুল পরিমাণ সরঞ্জাম রয়েছে। সেখান থেকে এক রাউন্ড গুলী, একটি গুলীর খোসা ও গলে যাওয়া কিছু ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। ম্যাজিস্ট্রেটরা জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে কামরুল অনেক কথা বলেছেন। তাকে সাজা না দিয়ে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে জবানবন্দি রেকর্ড করানো পর কোতয়ালী থানায় নিয়মিত মামলা রেকর্ড করা হবে। অভিযানকালে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর যশোরের এসআই বদরুল হাসানসহ দপ্তরের কর্মী ও পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। আটক অস্ত্র তৈরির কারিগর কামরুল ইসলাম একই গ্রামের আব্দুল গফুরের ছেলে। তার সহযোগী একই গ্রামের নুর মোহাম্মদের ছেলে আবুল বাসার (৩২) ও কামরুল ইসলামের স্ত্রী রাবেয়া সুলতানা রানি (২৮)।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ