বৃহস্পতিবার ০২ জুলাই ২০২০
Online Edition

২০ টাকার প্রলোভন দেখিয়ে শিশু তানজিলকে হত্যা

নারায়ণগঞ্জ সংবাদদাতা: মাত্র ২০ টাকার প্রলোভন দেখিয়ে শিশু তানজিলকে ডেকে নিয়ে বলাৎকারের পর হত্যা করেছে বাড়ির কেয়ারটেকার নাজমুল ইসলাম রাজু। শনিবার (১৯ জানুয়ারি) পুলিশের কাছে দেয়া এক স্বীকারোক্তিতে আসামি নাজমুল ইসলাম রাজু এসব কথা বলেন।
রবিবার (২০ জানুয়ারি) দুপুরে এক প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ গণমাধ্যমে এ তথ্য জানান।
স্বীকারেক্তিতে নাজমুল ইসলাম রাজু জানান, ‘১৬ জানুয়ারি আসামি নাজমুল ইসলাম মাদকদ্রব্য সেবন করে। সন্ধ্যায় তানজিলকে বলাৎকারের উদ্দেশ্যে ২০ টাকার প্রলোভন দেখিয়ে আলমখানের স্টোর রুমে নিয়ে যায়। সেখানে সে তানজিলকে বলৎকার শেষে আটকে রাখে। তানজিলের মা তাকে খোজ করে না পেয়ে ডাকাডাকি করতে থাকে।
তানজিল তার মায়ের ডাকের সাড়া দিতে চাইলে আসামি নাজমুল ইসলাম রাজু তার নাক-মুখ চেপে ধরে। তারপরও তানজিল সাড়া দিতে চাইলে আসামী বলৎকারের ঘটনা ফাঁসের ভয়ে শ্বাসরোধ করে তানজিলকে হত্যা করে। পরে লাশটি উক্ত স্টোর রুমে থাকা কাথা দিয়ে পেচিয়ে মেঝেতে রাখে এবং তার উপর বড় ড্রাম দিয়ে ঢেকে দেয়। শেষে স্টোর রুমটি তালাবদ্ধ করে পালিয়ে যায় সে।
উল্লেখ্য, বুধবার (১৬ জানুয়ারি) সন্ধ্যা থেকে নিখোঁজ ছিলো শিশু তানজিল।
 তারপর দিন ১৭ জানুয়ারি আলমখানের ভাড়া বাড়ির স্টোর রুমে একটি টিনের ড্রামের ভিতর থেকে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় শিশু তানজিল বারা উক্ত বাড়ির কথিত ম্যানেজার নাজমুল ইসলাম রাজু বিরুদ্ধে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি মামলা করে। কিন্তু সে সময় অভিযুক্ত নাজমুল ইসলাম রাজু পলাতক ছিলেন। পরবর্তীতে ১৮ জানুয়ারি চুয়াডাঙ্গায় অভিযান পরিচালনা করে অভিযুক্ত আটক করে পুলিশ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ