শনিবার ০৪ জুলাই ২০২০
Online Edition

কেএমপির পক্ষ থেকে মাইকিং খুলনায় যে কোন উৎসবে পটকা-আতশবাজি নিষিদ্ধ

খুলনা অফিস : পবিত্র শবে বরাত ও পূজায় পটকা ও আতশবাজি নিষিদ্ধ থাকলেও এবার খুলনা মহানগরীতে যেকোনো ধরনের উৎসব বা অনুষ্ঠানে বিস্ফোরক দ্রব্য, আতশবাজি, পটকাবাজি অন্যান্য ক্ষতিকারক ও দূষণীয় দ্রব্য বহন এবং ফোটানো নিষিদ্ধ করা হয়েছে। খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের ( কেএমপি) ভারপ্রাপ্ত কমিশনার এ নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। এ বিষয়ে সচেতনতার লক্ষে শনিবার হতে কেএমপির পক্ষ থেকে মাইকিং করা হচ্ছে। যা চলবে সাতদিন পর্যন্ত। প্রচারণায় অংশ নেয়া খুলনা সদর থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) আবুল কালাম বলেন, শুক্রবার এক সভার মাধ্যমে যেকোনো অনুষ্ঠানে ক্ষার জাতীয় বা বিস্ফোরক দ্রব্য, আতশবাজি, পটকাবাজি, অন্যান্য ক্ষতিকারক ও দূষণীয় দ্রব্য বহন, বিক্রয় এবং ফোটানো নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তিনি জানান, কোনো ধর্মীয়, সামাজিক, পারিবারিক অথবা রাজনৈতিক অনুষ্ঠানে আতশবাজি, পটকাবাজি ফোটানো নিষিদ্ধ করা হয়েছে। একই সঙ্গে ফুটপাতে কোনো দোকান না বসা, স্কুল-কলেজের সামনে বিড়ি/সিগারেট বেচাকেনা করতেও নিষেধ করা হয়েছে। এ আদেশ অমান্যকারীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে নিষেধাজ্ঞায় উল্লেখ করা হয়েছে। শহরবাসীকে এ নিষেধাজ্ঞা মেনে চলার অনুরোধ জানিয়েছেন পুলিশ কমিশনার।
কেএমপির এ সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়েছেন নগরবাসী। তারা বলছেন, গত কয়েক বছর ধরে শহরসহ আশপাশের এলাকায় প্রচন্ড আওয়াজে পটকা ফুটানোর কারণে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছিল জনজীবন। বিশেষ করে শিশু, বৃদ্ধ ও হৃদরোগে আক্রান্ত ব্যক্তিরা সময়-অসময়ের এসব পটকার বিকট শব্দে অসহনীয় সময় পার করছিলেন।
কেএমপির ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কমিশনার সরদার রাকিবুল ইসলাম বলেন, আমি নিজেই আতবাজি ও পটকার বিরুদ্ধে প্রচারণায় নেমেছি। সবক’টি ক্লাব ও কমিনিউটি সেন্টারকে যেকোনো অনুষ্ঠানে আতশবাজি বন্ধের নির্দেশ দিয়ে চিঠি দিয়েছি। এরপরও যদি কোথাও পটকা বা আতশবাজির সঙ্গে কেউ জড়িত থাকে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
মাদক ব্যবসায়ীসহ ৬৮ জন গ্রেফতার : খুলনা মেট্রোপলিটন ও জেলা পুলিশের অভিযানে ২৪ ঘণ্টায় মাদক ব্যবসায়ীসহ ৬৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শনিবার সকাল ৮টা থেকে রোববার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় খুলনা মহানগর ও জেলা পুলিশের বিশেষ অভিযানে মহানগরীর ৮ থানা ও জেলা ৯ থানা এলাকা থেকে এদেরকে গ্রেফতার করা হয়।
কেএমপি’র অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (আরসিডি) শেখ মনিরুজ্জামান মিঠ জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় খুলনা মহানগর পুলিশের অভিযানে মহানগরীর বিভিন্ন থানা এলাকা থেকে ১৪ জন মাদক ব্যবসায়ীসহ মোট ২৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে ৮০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও ৩৩৫ গ্রাম গাঁজা  উদ্ধার করা হয়। অপরদিকে খুলনা জেলা বিশেষ শাখার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আনিচুর রহমান জানান, খুলনা জেলা পুলিশের নিয়মিত অভিযানে ১৯ জানুয়ারি সকাল ৮টা থেকে ২০ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘন্টায় তিনজন মাদক ব্যবসায়ীসহ ৩৯ জন আসামীকে গ্রেফতারপূর্বক বিজ্ঞ আদালতে সোর্পদ করা হয়েছে। জেলার বিভিন্ন থানা এলাকা থেকে এসব মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়। আটককৃতদের কাছ থেকে ৪৯ পিচ ইয়াবা ও ১০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা হয় এবং তিনটি মাদক মামলা রুজু করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ