শনিবার ০৪ জুলাই ২০২০
Online Edition

দুর্বৃত্তের গুলীতে খাগড়াছড়িতে ইউপিডিএফ কর্মী নিহত

আব্দুল্লাহ আল-মামুন, খাগড়াছড়ি থেকে : খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলায় দুর্বৃত্তের গুলীতে পিপলু বৈষ্ণব ত্রিপুরা ওরফে রনি (৪২) নামে ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপের এক কর্মী নিহত হয়েছে।
শনিবার (১৯ জানুয়ারি) রাত সাড়ে ৮টার দিকে জেলা সদরের গাছবান এলাকায় দুর্বৃত্তরা তাকে গুলি করে পালিয়ে যায়। নিহত রনি খাগড়াছড়ির রামগড় উপজেলার বল্টুরাম এলাকার মৃত নিগমানন্দ বৈষ্ণব ত্রিপুরার ছেলে। এসময় রনি গাছবানমুখ এলাকায় শ্বশুর বাড়িতে অবস্থান করছিলেন।
পুলিশ জানায়, রনি পাহাড়ের আঞ্চলিক সংগঠন ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপের সামরিক শাখার সাথে সম্পৃক্ত ছিল। ২০১৬ সালের ১৩ নভেম্বর যৌথ বাহিনীর এক অভিযানে অস্ত্রসহ আটক হয়েছিল। কারাগার থেকে বের হয়ে আবারও সে ইউপিডিএফ’র সাথে সম্পৃক্ত হয়ে পড়ে।
তবে নিহত রনিকে নিজেদের সাবেক কর্মী দাবি করে ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপের কেন্দ্রীয় প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক নিরন চাকমা বলেন, একটি দুর্ঘটনায় পায়ে আঘাত পেয়ে শারীরিকভাবে প্রতিবন্ধী হয়ে পড়েন। ইউপিডিএফ’র সাথে সম্পৃক্ত থাকায় জনসংহতি সমিতির সংস্কারবাদীরা তাকে হত্যা করেছে।
খাগড়াছড়ি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাহাদাত হোসেন টিটো ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।
প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ১৩ নভেম্বর খাগড়াছড়িতে যৌথ বাহিনীর অভিযানে একটি টুটু বোরের রাইফেল ও বিপুল পরিমা সামরিক সরঞ্জামসহ ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট’র (ইউপিপিএফ) সে সময়কার সামরিক শাখার প্রধান উজ্জল স্মৃতি চাকমাসহ পিপলু বৈঞ্চব ওরফে রনি ত্রিপুরা গ্রেফতার হয়েছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ