সোমবার ১০ আগস্ট ২০২০
Online Edition

সুপার ওভারে দেশীয়দের দেখতে চাই   -কোচ রোডস

স্পোর্টস রিপোর্টার : বিপিএলের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো এবার সুপার ওভারের দেখে মিলেছে। গত ১২ জানুয়ারী তুমুল নাটকীয় সুপার ওভারে খুলনা টাইটান্স ও চিটাগং ভাইকিংসের মধ্যকার ওই ম্যাচটি শেষ হয়। সুপার ওভারে দুই দলের বোলিং আর ব্যাটিংয়ে দেখা যায় বিদেশিদের আধিক্য। তবে পরবর্তীতে এমন পরিস্থিতে দেশীয়দের দেখতে চান টাইগার কোচ স্টিভ রোডস। বিপিএলের সিলেট পর্বের ম্যাচগুলো দেখতে বর্তমানে সিলেটে অবস্থান করছেন রোডস। সেখানেই গতকাল (১৭ জানুয়ারি) সংবাদ সম্মেলনে হাজির হন তিনি। সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেওয়ার পাশাপাশি সুপার ওভার নিয়ে ওই মন্তব্য করেন এই ইংলিশ কোচ। রোডস বলেন, 'আমি জানি এবার নিয়ম করা হয়েছে, কম বিদেশি ক্রিকেটার খেলানোর জন্য। আমার মনে হয় ভবিষ্যতের জন্য একটা জিনিস ভাবতে পারে ক্রিকেট কর্তারা, ম্যাচগুলো যখন সুপার ওভারে যাবে, আমি বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের ব্যাট ও বল হাতে দেখতে চাইব। আমি জানি এটা ভিন্ন ধরনের। কারণ দেখা যাবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এমন কোনো অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে, যেখানে আমাদের সুপার ওভারের অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে হতে পারে। এমনকি ওয়ানডে ম্যাচেও হতে পারে। হতে পারে পঞ্চাশ ওভারের ম্যাচে একই অবস্থা সৃষ্টি হলে সুপার ওভারে পাওয়া অভিজ্ঞতার মাধ্যমে সমাধান করা যায়। আমি চাইব বিপিএলে সুপার ওভারে দুই দলের বোলার হতে হবে বাংলাদেশি। এটা দারুণ হবে। এটা টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই দল নির্বাচনে প্রভাব ফেলবে। দলগুলো দেখতে চাইবে ওইরকম অবস্থায় কে বল করবে এবং সেই বোলারদের দলে নিতে চাইবে, যেমন তাসকিন, মোস্তাফিজ, রনি। আর একজন ব্যাটসম্যান অবশ্যই হতে হবে। 

এভাবে তারাও এমন অবস্থায় খেলার অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারবে। আমি চাই বাংলাদেশি প্লেয়াররা ম্যাচের সব অবস্থার জন্য প্রস্তুত থাকুক।’

বিপিএলের চলতি আসরের ১১তম ম্যাচে মুখোমুখি হয় খুলনা টাইটান্স ও চিটাগং ভাইকিংস। প্রথমে ব্যাট করে খুলনা নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৫১ রান সংগ্রহ করে। জবাবে সমান রানেই থামে চিটাগংয়ের ইনিংস। দারুণ নাটকীয়তার পর ম্যাচ গড়ায় সুপার ওভারে। বিপিএলের ইতিহাসে যা প্রথম। সুপার ওভারে চিটাগংয়ের হয়ে ব্যাট করতে নামেন ডেলপোর্ট ও রোবি ফ্রাইলিঙ্ক। বোলিংয়ে ছিলেন পাকিস্তানি  পেসার জুনায়েদ খান। ওভারের চতুর্থ বলে ফ্রাইলিঙ্ক বোল্ড হয়ে ফিরলে ক্রিজে আসেন মুশফিক। ওই ওভারে ১১ রান সংগ্রহ করে চিটাগং। ১২ রানের টার্গেট নিয়ে ব্যাট করতে নামেন খুলনার দুই বিদেশি তারকা কার্লোস ব্র্যাথওয়েট ও ডেভিড মালান। বোলিংয়ে আসেন ফ্রাইলিঙ্ক। ওভারের চতুর্থ বলে রানআউট হয়ে ব্র্যাথওয়েট ফিরে গেলে ক্রিজে নামেন পল স্টার্লিং। ১ রানে জয় পায় চিটাগং।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ