বুধবার ০৩ জুন ২০২০
Online Edition

ইউরোপে শৈত্যপ্রবাহ ও তুষারধসে নিহত ২১

১৩ জানুয়ারি, দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট : ইউরোপজুড়ে চলমান তীব্র শীত ও তুষারচাপায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২১ জনে। বন্ধ রয়েছে স্কি রিসোর্ট ও পাহাড়ি গ্রামগুলো। তুষারে চাপা পড়ে বন্ধ হয়ে গিয়েছে স্বাভাবিক যোগাযোগ। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমের এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা যায়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, শনিবার রাত থেকে সোমবার সকাল পর্যন্ত এই তীব্রতা আরও বাড়তে পারে। অনেক জায়গায় বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। নেই স্বাভাবিক যোগাযোগ ব্যবস্থা।  

যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র দফতর অস্ট্রিয়ায় ভ্রমণরত ব্রিটিশ পর্যটকদের সতর্কবার্তা দিয়েছে। সেখানে একটি পাহাড়ে কয়েকদিন ধরে আটকা পড়েছিলো ৬৬ জন কিশোর। পরে সামরিক হেলিকপ্টার দিয়ে তাদের উদ্ধার করা হয়।

সুইজারল্যান্ডে রাস্তা থেকে তুষার সরানোর জন্য ঘণ্টার পর ঘণ্টা কাজ করে যাচ্ছেন স্থানীয়রা। সেখানে একটি হোটেল ৩০০ মিটার প্রশস্ত তুষারের নিচে চাপা পড়েছে। এছাড়া বুলগেরিয়ায় বৈরী আবহাওয়ায় প্রাণ হারিয়েছে দুইজন। জার্মানির দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর বাভারিয়ার গভর্নর জানান, বৈরী আবহাওয়ার শিকার অন্তত ৫ হাজার মানুষ। শনিবার সকাল থেকেই তারা রাস্তা থেকে তুষার সরাচ্ছেন।  সার্বিয়ার কয়েকটি শহরে জারি করা হয়েছে জরুরি অবস্থা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ