শনিবার ৩০ মে ২০২০
Online Edition

সদর হাসপাতালে ২ দালালকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা

ঝালকাঠি সংবাদদাতা, ১০ জানুয়ারি : ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে রোগীদের পরীক্ষা-নিরীক্ষার আধুনিক যন্ত্রপাতি থাকলেও হাসপাতাল সংলগ্ন বিভিন্ন ডায়াগনস্টিক ল্যাবের দালালরা রোগীদের ভুল বুজিয়ে ভাগিয়ে নিতে সবসময় তৎপর থাকে। র‌্যাব, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের অভিযানে জরিমানা করার পরেও কোন ক্রমেই থামানো যাচ্ছে না দালালদের।
দালালদের মধ্যে কয়েকজনে রয়েছেন যারা রোগী ভাগিয়ে নিতে না পারলে তাদের সাথে অশালীন আচরণ করতেও দ্বিধা করে না। বুধবার এক উচ্চ শিক্ষিত ভদ্র মহিলা সদর হাসপাতালে যান স্বাস্থ্য সেবা নিতে। ডাক্তার তাকে কয়েকটি পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য ব্যবস্থাপত্র দেন। ডাক্তারের রুমের বাইরে বের হলেই দালালদের টানাটানি শুরু হয়। তাকে ভাগিয়ে নিতে না পেরে অশালীন আচরণ করে দালালরা। তাতে তিনি অসন্তুষ্ট হলে মোবাইলে জেলা প্রশাসককে অবহিত করেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ বশির গাজী হাসপাতালে উপস্থিত হন। অভিযান চালিয়ে ২ দালালকে আটক করতে সক্ষম হন তিনি। ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ২ জনকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অন্যথায় ৭দিনের দন্ডাদেশ দেন। ল্যাব মালিকের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে ১০ হাজার টাকা জরিমানা দিয়ে ২ দালালকে ছাড়িয়ে নেয়া হয়। স্বাস্থ্যসেবা নিতে আসা সচেতনরা অভিযোগ করেন, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা ও চিকিৎসকদের দালাল প্রেমির কারণে দালালরা বেপরোয়া আচরণের সাহস পায়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ