বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

খোকসায় পেঁয়াজের চারা স্বল্পতায় লক্ষ্যমাত্রা অর্জন না হবার আশংকা

পেয়াজ লাগানোর কাজে ব্যস্ত সময় পার করছে কৃষকরা

খোকসা (কষিয়া) সংবাদদাতা, ৮ জানুয়ারি : কুষ্টিয়া খোকসা উপজেলায় ২ হাজার ২ শত ৩৫ হেক্টর জমিতে পেঁয়াজের লক্ষমাত্রা অর্জনে চারা স্বল্পতা দেখা দিয়েছে কৃষকের মাঝে। উপজেলার ৯ টা ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভার ৮২৪৩ হেক্টর আবাদযোগ্য জমির মধ্যে চলতি বছরে চলমান সাড়ে চার শত হেক্টর জমিতে পেঁয়াজের চারা চাষ হয়েছে। উপজেলার ২৮ টা ব্লকে ২৬ জন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা নিয়োগ রয়েছে। উপজেলায় মুড়িকাটি পেঁয়াজের আবাদ হয়েছিল ২শ হেক্টর জমিতে। পেঁয়াজের চারা লাগাতে খোকসার কৃষকরা বলেন, বেশির ভাগ জমিতে তাহেরপুর, মেটাল কিং ও বারী-১ জাতের পেয়াজের চারা বপন করা হচ্ছে। উপজেলার আমরবাড়ীয়া, একতারপুর, জয়ন্তীহাজরা, খোকসা সদর, জানিপুর ইউনিয়নে বেশ জমি চাষ করেছেন কৃষকগণ। পেয়াজের বীজের দাম বেশী হওয়া ও আশানুরূপ চারা উৎপাদন না হওয়ায় চারা পেয়াজের লক্ষমাত্রা অর্জন না হওয়ার আশংকা করছেন স্থানীয় কৃষকগণ। জয়ন্তীহাজরা ইউনিয়নের কৃষক মোতাহার জানান, চার বিঘা জমিতে পেয়াজের চারা লাগানোর জন্য জমি ও বীজতলা করেছিলাম। কিন্তু পেয়াজের চারা আশানুরূপ না হওয়ায় বিঘা খানিক জমি পড়েই থাকবে। তিনি আরো বলেন আমার মতো অনেক কৃষক পেয়াজের চারা না পেয়ে হমি পড়ে থাকবে।
এদিকে খোকসা স্থানীয় বাজার গুলোতে যেয়ে দেখা গেছে এক কেজি পেয়াজের চারা ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। অপর দিকে কৃষক মিজান জানান, ২ হাজার টাকায় এক বস্তা পেয়াজের চারা কিনে মাত্র ২ কাঠা জমি পেয়াজ লাগাতে পেরেছে। বাকি ১২ কাঠা জমি পড়েই থাকবে। উপজেলা কৃষি সহকারী কর্মকর্তা সদর উদ্দিন জানান, চারা পেয়াজের বপন কেবল মাত্র শুরু হয়েছে ইতিমধ্যে কৃষকগণ প্রায় সাড়ে চার শত হেক্টর জমিতে পেয়াজের চারা বপন করেছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ