শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

কুমিল্লাকে ৯ উইকেটে হারিয়ে দ্বিতীয় জয় রংপুরের

স্পোর্টস রিপোর্টার : প্রথম ম্যাচে হার দিয়ে বিপিএল শুরু করলেও পরের দুই ম্যাচে টানা জয় পেয়েছে মাশরাফির রংপুর রাইডার্স। প্রথম ম্যাচে চিটাগং ভাইকিংসের কাছে হেরেছিল রংপুর। তবে পরের ম্যাচে খুলনাকে হারিয়ে দলটি জয়ে ফিরে। আর গতকাল কুমিল্লাকে ৯ উইকেটের ব্যবধানে হারিয়ে পেল বিশাল জয়। ফলে টানা দুই জয় এখন রংপুরের। গতকাল টস জিতে রংপুর আগে ব্যাট করার সুযোগ দেয় কুমিল্লাকে। আগে ব্যাট করতে নেমে চরম ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে দলটি মাত্র ৬৩ রানে অলআউট হয়। বিপিএলে এবারের আসরে এটাই সর্বনি¤œ স্কোর। ফলে জয়ের জন্য রংপুর পায় মাত্র ৬৪ রানের টার্গেট। এই টার্গেটে বিশাল জয়টা প্রত্যাশিত ছিল রংপুরের সামনে। পেতে পারত ১০ উইকেটে জয়। কিন্তু ব্যাট করতে নেমে ৬৪ রান তুলতে রংপুর হারায় একটি উইকেট। তবে ১২ ওভারে এক উইকেট হারিয়ে দলটি ৬৭ রান করে ম্যাচ জিতে ৯ উইকেটে। দলের পক্ষে সেরা ব্যাটিং আকর্ষণ ক্রিস গেইল ১ রান করে আউট হলেও মেহেদী মাসুদ-রিলে রসুও জুটি করে দলকে জয় এনে দিয়েই মাঠ ছাড়েন। মেহেদী মাসুদ ৩৬ রানে আর রিলে রসু ২০ রানে অপরাজিত ছিলেন। আগে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৬৩ রানেই অলআউট হয় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। প্রথম ম্যাচে জয় দিয়ে শুরু করা দলটি দ্বিতীয় ম্যাচে এসেই রান খড়ায় ভুগেছে। দলের পক্ষে শহীদ আফ্রিদি ছাড়া কোনো ব্যাটসম্যানই ডাবল ফিগারে রান করতে পারেনি। রংপুর রাইডার্সের বোলিং আক্রমণে প্রথম থেকেই ভুগতে হয়েছে ব্যাটসম্যানদের। রংপুরের অধিনায়ক মাশরাফি, নাজমুল ইসলাম অপু আর সাইফুল এর বোলিং আক্রমণে কোনো ব্যাটসম্যানই টিকে থেকে বড় স্কোর খেলতে পারেনি। প্রথম থেকেই একের পর এক উইকেট হারিয়ে চাপে ছিল দলটি। শেষ পর্যন্ত দলের পাকিস্তানী ক্রিকেটার শহাীদ আফ্রিদির ২৫ রানের ওপর নির্ভর করে ৬৩ রানে পৌঁছাতে পারে কুমিল্লা। আফ্রিদীর ২৫ রানের ইনিংসটি সাজানো ছিল ১৮ বলে তিন চার আর এক ছক্কায়। অবশ্য দলটি খেলতে পারেনি পুরো ৫০ ওভার। ১৬.২ ওভারেই অলআউট হয় কুমিল্লা। দলের সেরা ব্যাটসম্যান হিসেবে রান করতে পারেনি ওপেনার তামিম ইকবাল, এভিন লুইস, শোয়েব মালিক আর অধিনায়ক স্টেভিন স্মিথ। তামিম ৪ রান আর লুইস ৮ রান করে আউট হলেও রানের খাতা খুলতে পারেননি স্মিথ আর শোয়েব মালিক। ফলে ৬৩ রানেই ফিরতে হয়েছে দলটিকে। অধিনায়ক মাশরাফি ১১ রানে চারটি, নাজমুল ইসলাম ২০ রানে তিনটি আর সফিউল ৮ রানে নেন ২টি উইকেট।
সংক্ষিপ্ত স্কোর :
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স----- ৬৩/১০ (১৬.২ ওভার)
রংপুর রাইডার্স---------৬৭/১ (১২ ওভার)
ফল: রংপুর রাইডার্স ৯ উইকেটে জয়ী।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ