বৃহস্পতিবার ০১ অক্টোবর ২০২০
Online Edition

ড. রেজাউল করিম ৫ দিনের রিমান্ডে

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা-১৫ আসনের ধানের শীষ প্রতীকের সমন্বয়ক, জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগর উত্তরের সেক্রেটারি ড. মুহা. রেজাউল করিমকে আটকের ৩ দিনপর আদালতে হাজির করেছে পুলিশ। গতকাল রোববার রামপুরা থানায় দায়ের করা ১টি মামলায় পুলিশ ১০ দিনের রিমান্ড চাইলে আদালত ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে।
ঢাকা-১৫ আসনের নির্বাচনী কাজ শেষে বাসায় ফেরার পথে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর থেকে তাকে খুঁজে পাচ্ছিল না তার পরিবার। এ নিয়ে পরিবার-পরিজন গভীর উদ্বেগের মধ্যে ছিল। গতকাল বিকেলে  ড. মুহাম্মদ রেজাউল করিম ও তার গাড়ীর চালক মুহিব্বুল্লাহকে রামপুরা থানার ২৭(১২)১৮ নং মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে ১০ দিনে রিমান্ড আবেদন করেন। শুনানী শেষে মহানগর হাকিম মামুনুর রশিদ জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
আদালতে ড. রেজাউলের পক্ষে শুনানীতে আইনজীবীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এডভোকেট মাইনুদ্দিন, এডভোকেট লুৎফর রহমান আজাদ, এডভোকেট রোকন রেজা শেখ, এডভোকেট আজমত হোসেন, এডভোকেট আবু বকর সিদ্দিক, এডভোকেট শাহিন আক্তার, এডভোকেট রিয়াজ হোসেন প্রমুখ।
শুনানী শেষে এডভোকেট রোকন রেজা শেখ বলেন, ড. রেজাউল করিমকে আটকের পর পুলিশ ৫ কেজি গান পাউডার উদ্ধার করেছে বলে হাস্যকর অভিযোগ করেছে। তার মতো একজন রাজনৈতিক নেতা নিজের গাড়ীতে গান পাউডার রাখার অভিযোগ বিস্ময়কর। তিনি বলেন, ড. রেজাউল ঢাকা-১৫ আসনের ধানের শীষের প্রতীকের নির্বাচনে অন্যতম সমন্বয়ক। মূলত: ওই আসনে সুষ্ঠু নির্বাচন বাধাগ্রস্ত করার জন্যই তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রতিদিনই সেখানে নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, নির্বাচন কমিশনের নিদের্শনা উপেক্ষা করে অতিউৎসাহী পুলিশ ভোটারদের মধ্যে ভীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ