রবিবার ০৯ আগস্ট ২০২০
Online Edition

সখিপুরে বিএনপি প্রার্থীর টানানো পোস্টার ছিঁড়ে ফেলেছে আওয়ামী লীগ

শরীয়তপুর সংবাদদাতা : শরীয়তপুর-২ আসনের আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থীর সমর্থকরা বিএনপি প্রার্থী শফিকুর রহমান কিরনের টানানো শতাধিক ধানের শীষের পোস্টার ছিঁড়ে ফেলেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে  বিএনপি নেতাকর্মী ও সমর্থকদের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে। আজ শনিবার দুপুরে শরীয়তপুর-২ আসনের সখিপুর থানার দক্ষিণ তারাবুনিয়া ইউনিয়নের আফামোল্যার বাজারে ও একই থানার বালার বাজারে প্রায় ৪ শতাধিক পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা হয়। আওয়ামীলীগ সমর্থকরা নির্বাচনী প্রচারণা থেকে বিরত থাকতে হুমকি ধমকি প্রদান করে বলেও জানান ধানের শীষ সমর্থকরা। ধানের শীষের পোস্টার টানানোর সময় আওয়ামীলীগের সমর্থকরা হামলা চালিয়ে সখিপুরের চরসেন্সাস ইউনিয়ন ছাত্রদলের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতিসহ ৭জনকে বেদম মারপিট করে। তাদেরকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। আহত ছাত্রদল নেতারা জানান পুলিশের উপস্থিতিতে বালার বাজারে পোস্টারগুলো ছিঁড়ে ফেলা হয়। তবে পুলিশ বলছেন কোন পোস্টার ছিঁড়ে ফেলার আলামত পাওয়া যায়নি। তর্ক বিতর্ক হওয়ার সংবাদ পেয়েছি।
সখিপুরের দক্ষিণ তারাবুনিয়া ইউনিয়ন যুবদলের সহ-সভাপতি জাকির হোসেন ফকির বলেন, দক্ষিণ তারাবুনিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মানিক শেখ ও যুবলীগ নেতা কামরুলের নেতৃত্বে ধানের শীষের শতাধিক টানানো পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে।
চরসেন্সাস ইউনিয়ন ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মুহিন বলেন, আমরা ধানের শীষের পোস্টার টানানোর কাজ করঠিলাম। এমন সময় আওয়ামীলীগ প্রার্থীর সমর্থক স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতা ফাহমিদ বালা, ইমরাণ বেপারী, দেলোয়ার জমাদ্দার ও রুবেল ছৈয়ালসহ ১৫/২০জন হঠাৎ করে এসেই আমাদের উপর হামলা করে আমাদেরকে মারধর শুরু করে। পরে আমরা নিরাপদে চলে যাই। এর পর তারা পুলিশের উপস্থিতিতেই বালার বাজারে টানানো ধানের শীষের প্রায় ৪/৫শ’ টানানো পোস্টার ছিড়ে ফেলে। 
সখিপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ এনামুল হক বলেন, বালার বাজারে দুই পক্ষের মধ্যে তর্কবির্তকের সংবাদ পেয়ে পুলিশ পাঠিয়েছি। সেখানে পুলিশ গিয়ে পোস্টার ছিঁড়ে ফেলার কোন আলামত পায়নি। পুলিশ ঘটনাস্থলে যাওয়ার সংবাদ পেয়েই উভয় পক্ষ চলে গেছে। পুলিশের উপস্থিতিতে কোন পোস্টার ছেড়া হয়নি। এটা মিথ্যা এবং বানোয়াট।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ