মঙ্গলবার ০৪ আগস্ট ২০২০
Online Edition

মাধবদীতে ডায়রিয়া ছড়িয়ে পড়ছে হাসপাতালে অনিয়মের অভিযোগ

মাধবদী (নরসিংদী) সংবাদদাতা : মাধবদী পৌর এলাকা সহ আশপাশের ইউনিয়ন নুরালাপুর, শিলমান্দী, মহিষাশুড়া এবং মাধবদীর পূর্বাঞ্চলীয় চর এলাকায় বেড়েছে ডায়রিয়ার প্রকোপ। এসব ইউনিয়নে গত দু’সপ্তাহে ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। গত দু’দিনের গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিতে সেঁতসেঁতে অবস্থায় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে হাড় কাপানো শীতের পাশাপাশি এ রোগের প্রভাব আরো বেড়ে চলেছে বলে জানান কয়েকজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক। মাধবদী, পাচঁদোনা, শেখেরচর সহ আশপাশের ১১টি প্রাইভেট ক্লিনিক ও সরকারী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে প্রায় প্রতিটিতেই ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিতে আসা রোগী এবং স্যালাইন নেয়ার জন্য রোগীর আতœীয়দের ভীড়। দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎসকরা জানিয়েছেন প্রতিদিনই সকাল থেকে মধ্য রাত পর্যন্ত ডায়রিয়ার রোগী অথবা রোগীর আত্নীয়রা আসছেন স্যালাইন, ওষুধ ও চিকিৎসা নিতে। এসব হাসপাতাল ও চিকিৎসা কেন্দ্রের দেয়া তথ্যমতে গত ৭ দিনে প্রায় ২ শতাধিক ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগী তাদের এখানে চিকিৎসা নিয়েছেন এবং প্রতিদিনই নতুন আক্রান্ত রোগী আসছেন চিকিৎসা নিতে। এসব রোগীর অধিকাংশই শিশু ও মহিলা বলে জানিয়েছেন বেশ কয়েকজন চিকিৎসক। অপরদিকে সরকারী স্বাস্থ্য সেবা ক্লিনিকগুলির অধিকাংশতেই খাবার স্যালাইন পাওয়া যাচ্ছেনা বলে অভিযোগ অনেক রোগী ও তাদের আত্নীয়স্বজনের। তারা বলেছেন রাতে রোগীর অবস্থা আশঙ্কাজনক হলেও চিকিৎসকদের কল করে বাসায় নেয়া যায়না এবং হাসপাতালে নিয়ে এলেও ওয়ার্ড বয় চিকিৎসকের সহকারী আর নার্স ছাড়া কোন চিকিৎসক পাওয়া যায়না। এতে করে বেশ কিছু রোগী চিকিৎসার অভাবে মৃত্যু বরণ করেছেন বলেও জানান ভূক্তভোগীরা। এ ব্যাপারে চারটি প্রাইভেট ক্লিনিকের কয়েকজন চিকিৎসকের সাথে কথা বললে তারা জানান আমাদের হাসপাতালে রোগী নিয়ে আসতে বিলম্ব হলে চিকিৎসা দেয়ার পূর্বেই কেউ হয়তো মারা যেতে পারে আর দীর্ঘ সময় পূর্বে আক্রান্ত রোগীর র্পালস ক্ষীণ হয়ে গেলে রোগীর শরীরে স্যালাইন পুশ করা সম্ভব না হলে আমাদের আর কিছু করার থাকেনা। বেশ কিছু রোগীর আত্নীয় স্বজনের অভিযোগ রোগী নিয়ে হাসপাতালে এলে বেডে নেয়ার আগেই ডাক্তারের ফি, অষুধ, ভর্তি ফি পরিশোধ না করলে চিকিৎসা হয়না এবং হাসপাতালের ষ্টাফ বয় সবাইকেই আলাদা খরচ না দিলে কেউ কাছে আসেনা। এসব অভিযোগ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ অস্বীকার করলেও স্বাস্থ্য সেবার মান উন্নয়নে সরকারের পদক্ষেপের প্রশংসা করে অনেক অসহায় গরীব রোগী ও তাদের আত্নীয়দের দাবী সরকারের স্বাস্থ্যখাতে আরো জোরালো নজরদারী খুবই জরুরী হয়ে পড়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ