মঙ্গলবার ০৪ আগস্ট ২০২০
Online Edition

অব্যাহত গ্রেফতারের ব্যাপারে সিইসি বেখবর

চট্টগ্রাম-১৫ (লোহাগাড়া সাতকানিয়া) আসনে আওয়ামী প্রার্থীর নির্দেশে ধানের শীষের কর্মীদের গ্রেফতার করা, বাড়িতে পুলিশ পাঠিয়ে হুমকি দেয়া এবং প্রচারণায় বাধা দেয়া অব্যাহত রাখার প্রতিবাদে বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছেন ২০ দলীয় জোটপ্রার্থী আ.ন.ম শামসুল ইসলামের প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট ও বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার আমীর জাফর সাদেক।
গতকাল বুধবার দেয়া বিবৃতিতে জেলা আমীর বলেন, নৌকা প্রার্থীর নির্দেশে প্রতিদিন পুলিশ গিয়ে বিনা ওয়ারেন্টে নিরীহ কর্মীদের গ্রেফতার করছে। ধানের শীষের কর্মীদের বাড়িতে চিহ্নিত সন্ত্রাসী পাঠিয়ে প্রকাশ্যে হুমকি দিচ্ছে। গত ১৮ ডিসেম্বর লোহাগাড়ার আধুনগর মোস্তাক আহমদ উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের ধানের শীষের কেন্দ্র পরিচালক হরিণা এলাকার মোহাম্মদ হারুন ও মোহাম্মদ ইয়াছিনকে বিনা ওয়ারেন্টে গ্রেফতার করে পুলিশ। ইতোপূর্বে পদুয়া ইউনিয়নের মোস্তাক আহমদ সবুজ ও আকতার হোসাইনকে কোর্ট বিল্ডিং থেকে সম্পূর্ণ অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করে। গত মঙ্গলবার সাতকানিয়ার পশ্চিম ঢেমশা ইউনিয়ন থেকে গাটিয়াডেঙ্গার ধানের শীষের কর্মী মাসুদ, এনাম ও পারভেজকে পুলিশ সম্পূর্ণ বেআইনীভাবে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। নৌকা প্রার্থীর পিএস এরফানের নির্দেশে সোনাকানিয়ার আলুরঘাট এলাকায় ধানের শীষের মাইকিংয়ে বাধা দেয় এবং গাড়িতে থাকা কর্মীদের মারধর করে পাঠিয়ে দেয়। এতকিছু ঘটে যাওয়ার পরও নির্বাচন কর্মকর্তাবৃন্দ আজ নীরব। বরং সিইসি’র কাছে এগুলো কোনো ঘটনায় নয়। তিনি সম্পূর্ণ বধির ও চক্ষুষ্মান অন্ধ।
তিনি গ্রেফতারকৃত ধানের শীষের সকল কর্মী সমর্থককে নিঃশর্ত মুক্তি দিয়ে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি করার জন্য প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ