রবিবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২০
Online Edition

কয়রায় আওয়ামী লীগ অফিস ভাঙচুরের কল্পকাহিনী অভিযোগের তীব্র নিন্দা

খুলনা ৬ আসনে (কয়রা-পাইকগাছা) আওয়ামী লীগের নির্বাচনী অফিস ভাঙচুরের মিথ্যা অভিযোগের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে জামায়াতের নেতৃবৃন্দ।
গতকাল বুধবার দেয়া বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, কয়রায় আওয়ামী লীগের অফিস ভাঙচুরের অভিযোগ কল্পকাহিনী ছাড়া আর কিছুই নয়। মিথ্যা ও ভিত্তিহীন অভিযোগ তুলে নেতাকর্মীদের নামে মামলা দায়ের করেছে। প্রার্থী এবং আওয়ামী লীগ নেতাদের নির্দেশেই এমন মিথ্যা ঘটনা ঘটিয়ে মামলা করে নেতাকর্মীদের হয়রানির উদ্যোগ নিয়েছে।
নেতৃবৃন্দ বলেন, আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ বুঝে গেছে, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে তাদের পরাজয় হবে। তাই নেতাকর্মীদের উপর হামলা ও গণগ্রেফতার শুরু করেছে। এসব বিষয় নিয়ে রিটার্ণিং কর্মকর্তার দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেও কোন ফল পাওয়া যায়নি। নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, সরকারের ইশারায় নির্বাচন কমিশন চলছে। তারা সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি করতে পারেনি। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ জনসমর্থন হারিয়ে এখন দিশেহারা। নেতৃবৃন্দ এসব কর্মকাণ্ড থেকে সরে এসে সাধারণ মানুষের ভোটের মাধ্যমে সরকার নির্বাচনে মতামত দানের সুযোগ দানের দাবি জানান।
বিবৃতিদাতারা হলেন, ধানের শীষের প্রার্থীর প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট এডভোকেট লিয়াকত আলী, মাওলানা গোলাম সরোয়ার, এডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান, মিজানুর রহমান, আওসাফুর রহমান প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ