রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

লালমনিরহাটে বিএনপি’র ৪১৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা ৩২৭ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা

লালমনিরহাট সংবাদদাতা, ৮ ডিসেম্বর: গত ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭ উপলক্ষে জেলা বিএনপি লালমনিরহাটে বিজয় দিবসের র‌্যালী বের করে রেল স্টেশন সংলগ্ন শ্রমিক দল অফিসের সামনে পৌঁছাইলে আওয়ামীলীগ - বিএনপি সংঘর্ষ বাঁধে। এসময় পুলিশসহ কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়েছিল। এ ঘটনায় লালমনিরহাট সদর থানার এস.আই আলমগীর হোসেন ৪১৯ জন বিএনপি’র নেতা-কর্মীর নামে আদালতে অভিযোগ পত্র দাখিল করেন। এর মধ্যে ৩২৭ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারী করেছেন আদালত। বৃহস্পতিবার বিকেলে লালমনিরহাটের অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মেহেদী হাসান মন্ডল এ আদেশ দেন। জানা গেছে, গত বছর ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসের শোভাযাত্রায় আওয়ামীলীগ ও বিএনপির মধ্যে ধাওয়া ও পাল্টা ধাওয়া হয়। এ সময় তৎকালীন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এ সার্কেল) সুশান্ত সরকার, সদর থানার ওসি মাহাফুজ আলম, এস.আই আলমগীর হোসেন এবং ২ জন কনষ্টবল আহত হয়। পরের দিন বিএনপি’র ২৮ নেতা-কর্মীর নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত নামা আরো ৩০০-৪০০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন সদর থানার এস.আই আলমগীর হোসেন। মামলাটি দীর্ঘ তদন্ত শেষে বৃহস্পতিবার ৪১৯ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ পত্র দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও সদর থানার এস.আই মইনুল হক। আদালত ওই আদেশ প্রদান করেছেন। এব্যাপারে লালমনিরহাট জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান বাবলার কাছে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ভোটের আগে হঠাৎ করে শত-শত নেতা-কর্মীর নামে পুলিশের অভিযোগ পত্র দাখিলের ঘটনা উদ্দেশ্য প্রনোদিত। তিনি বলেন ঘটনার দিন বিএনপি’র শোভা যাত্রায় শুধু লালমনিরহাট সদর উপজেলার বিএনপি’র নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
অথচ পুলিশ আওয়ামীলীগের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা না নিয়ে লালমনিরহাট জেলার অন্যান্য উপজেলার বিএনপির নেতা-কর্মীদের নাম দিয়ে আদালতে চার্জশীট দাখিল করেছেন। এঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে মামলা প্রত্যাহারের দাবী জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ