রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

আমতলীর আড়পাঙ্গাশিয়া ব্রিজ ভেঙ্গে দুই উপজেলার তিন লাখ মানুষের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

আমতলী (বরগুনা) সংবাদদাতা : বরগুনার আমতলী উপজেলার আড়পাঙ্গাশিয়া নদীর উপর বেইলি ব্রীজ  ভেঙ্গে আমতলী ও তালতরী উপজেলার  তিন লক্ষ মানুষের বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।
জানা গেছে, উপজেলার আড়পাঙ্গাশিয়া খালের উপর ১৯৮৫ সালে স্থানীয় প্রকৌশল বিভাগ বেইলি ব্রীজ নির্মাণ করে। এ ব্রীজ দিয়ে দু’উপজেলার তিন’লক্ষাধিক মানুষ যাতায়াত করে। প্রতিদিন ঢাকা ও তালতলীগামী বাস আসা যাওয়া করে।
এছাড়া অভ্যান্তরীণ সড়কে বাস, লরি, ভারী ট্রাক, প্রাইভেটকার, মাহেন্দ্র , ব্যাটারী চালিত অটো, মোটর সাইকেলসহ সহস্রাধিক গাড়ী প্রতিদিন এ ব্রীজ দিয়ে পারাপার হয়।
গাড়ী চলাচল করায় দিন দিন ব্রীজ নড়বড়ে হয়ে পাটাতন (স্লিপার) আলগা হয়ে সরে ও ভেঙ্গে গেছে। ছোট গাড়ী ওঠলেও ব্রীজ ঠকঠক করে নড়ে। ব্রীজের মাঝখানের পাটাতন দেবে গেছে।
ব্রীজটি দ্রুত সংস্কার করা না হলে যেকোন সময় মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে, এমনটাই আশঙ্কা করেছে এলাকাবাসী। নড়বড়ে ব্রীজ দিয়ে পারাপার করার দু’উপজেলার তিন’লক্ষাধিক মানুষ হুমকিতে রয়েছে।
রবিবার  সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, ব্রীজের দক্ষিণ মাথার পাটাতন ভেঙ্গে নদীতে পড়ে গেছে  এবং মাঝখানের পাটাতন উঠে গেছে।  কোনো যানবাহন চলাচল করতে পারছেনা। স্থানীয় বাসিন্দা  মো. মতিয়ার রহমান মুন্সী ,  কামাল ও রমেশ  জানান, দীর্ঘদিন ধরে ব্রীজটি সংস্কার না হওয়ায় পাটাতন ভেঙ্গে নদীতে পড়ে যাওয়ায়  যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।
আমতলী উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ নজরুল ইসলাম বলেন, ওই খানে গাঢার ব্রীজ নির্মাণের  প্রস্তাবনা পাঠানো হয়েছে। তিনি আরও চলাচলের জন্য  মেরামতের কাজ চলছে।
আমতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সরোয়ার হোসেন বলেন, ব্রীজটি চলাচলের উপযোগী করার জন্য জন্য উপজেলা প্রকৌশলীকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ