রবিবার ০৯ আগস্ট ২০২০
Online Edition

মিয়া গোলাম পরওয়ারের বোনের ইন্তিকালে শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের শোক

বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাবেক এমপি অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ারের বোন গত সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় খুলনা সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তিকাল করেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন।
তার ইন্তিকালে গভীর শোক প্রকাশ করে শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের সাধারন সম্পাদক অধ্যাপক হারুনুর রশিদ খান এক শোকবাণী দিয়েছেন।
গতকাল মঙ্গলবার দেয়া শোকবাণীতে তিনি বলেন, মরহুমার জীবনের সকল নেক আমল কবুল করে তাকে জান্নাতবাসী করার জন্য মহান আল্লাহ রাব্বুল আ’লামীনের কাছে দোয়া করছি। মরহুমার শোক-সন্তপ্ত পরিবার-পরিজনদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে বলেন, মহান আল্লাহ তায়া’লা তাদের এই শোক সহ্য করার তাওফিক দান করুন।
উল্লেখ্য  জনাবা সামছুন্নাহার খুলনা সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দীর্ঘদিন চিকিৎসাধীন ছিলেন, ১০ নভেম্বর রাত ৭.৩০মিনিটে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।
সামছুন্নাহারের জানাযার নামায গতকাল বাদ জোহর  ফুলতলা শিরোমণির ইমামবাড়ী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের  মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। জানাযার নামাযের ইমামতি করেন মরহুমার বড় ভাই বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাবেক এমপি,খুলনা-৫ আসনের সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার।
জানাযায় খুলনা জামায়াতের মহানগরী ভারপ্রাপ্ত আমীর মাষ্টার শফিকুল আলম ও মহানগরী সেক্রেটারি মাহফুজুর রহমান, খুলনা-৩ আসনের সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী,বিএনপি নেতা রফিকুল ইসলাম বকুলসহ অন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন,খুলনা উত্তর জেলা জমায়াতের আমীর মাওলানা ইমরান হুসাইন,সেক্রেটারি মুন্সী মিজানুর রহমান, সহ-সেক্রেটারী মুন্সী মঈনুল ইসলাম, শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের খুলনা মহানগর সভাপতি খাঁন গোলাম রসূল, খুলনা উত্তর জেলা শ্রমিক কল্যাণের সভাপতি আব্দুল খালেক, ফুলতলা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গাউসুল আযম হাদী,ডুমুরিয়া উপজেলা ভাইসচেয়ারম্যান মাওলানা সিরাজুল ইসলাম, খুলনা মহানগর বিএনপির যুব বিষয়ক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম তুহিন,ছাত্র শিবিরের খুলনা অঞ্চল পরিচালক ইমরান খালিদ,খুলনা মহানগর শিবির সভাপতি হাবিবুর রহমান, খুলনা উত্তর জেলা শিবির সভাপতি তৌহিদুর রহমান, সেক্রেটারি নাহিদ হাসান, সাবেক উপজেলা ভাইসচেয়ারম্যান শেখ ইকবাল হুসাইন।  জানাজা শেষে তার নিজ গ্রামের  পারিবারিক কবরে তাকে শায়িত করা হয়।
মৃত্যুকালে তিনি, ৩ ছেলে,স্বামী নাতি ও আত্মীয়-স্বজন অসংখ্য শুভাকাঙ্ক্ষী রেখে চির বিদায় গ্রহণ করেছেন। প্রেসবিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ