সোমবার ১০ আগস্ট ২০২০
Online Edition

খুলনা সরকারি কলেজের জমি দখল করে বাড়ি নির্মাণ!

খুলনা অফিস : খুলনা মহানগরীর ছোট বয়রা এলাকায় খুলনা সরকারি কলেজের জমি দখল করে বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে জনৈক আব্বাস আলীর বিরুদ্ধে। দখলকৃত জমিতে স্থাপনা নির্মাণ করায় খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ও সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েও কোন প্রতিকার মেলেনি। প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষের ভাষ্য সরকারি কলেজের জমি দখল করে বাড়ি করলেও কেউ হস্তক্ষেপ করছে না। থানায় দেয়া লিখিত অভিযোগ থেকে জানা যায়, নগরীর ছোট বয়রা এলাকায় এম এ বারী সড়কে খুলনা সরকারি কলেজে সরকার র্নিধারিত জমির পরিমাণ ১ একর ৪৭ শতক। কলেজের পূর্ব পাশে সীমানা প্রাচীর-এর বাইরে কলেজে জমির পরিমাণ ৪ ফুট ১০ ইঞ্চি। কিন্তু সেই জমির অর্ধেকের বেশি দখল করে আব্বাস নামে এক ব্যক্তি বহুতল আবাসিক ভবন নির্মাণ করেছে। ভবনটির প্রায় পাঁচ তলার কাজ সম্পন্ন। সীমানা প্রাচীর ঘেঁষে ভবন নির্মাণ করায় এর (সীমানা প্রাচীর) কিছু অংশ ইতোমধ্যে ধসে পড়েছে। 

সরকারি সম্পত্তি দখল করে ভবন নির্মাণের কারণে বাড়ির মালিককে একাধিকবার মৌখিক ও লিখিত আকারে অভিযোগ জানিয়েও কোন প্রতিকার পাননি কলেজের অধ্যক্ষ যশোর শিক্ষাবোর্ডের সাবেক সচিব ড. মোল্লা আমীর হোসেন। তিনি এর প্রতিকার চেয়ে গত ৪ ডিসেম্বর সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। এছাড়া কেডিএ-তে অভিযোগ দিয়ে কোনো প্রতিকার মেলেনি বলে অভিযোগ করেন অধ্যক্ষ।

এ বিষয়ে কথা বলতে একাধিকবার নির্মানাধীন ভবনটিতে গিয়ে মালিক মো. আব্বাস আলীকে পাওয়া যায়নি। কর্মচারীরা কেউ এ বিষয়ে কথা বলতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ