মঙ্গলবার ১৪ জুলাই ২০২০
Online Edition

চট্টগ্রামের ১৬ আসনে ১৮০ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা

চট্টগ্রাম ব্যুরো : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রামে ১৬ আসনের জন্য ১৮০ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন বুধবার নগর সংশ্লিষ্ট ৬টি আসনের প্রার্থীরা বিভাগীয় কমিশনার ও রিটার্নিং অফিসার মো. আবদুল মান্নানের কাছে এবং জেলার ১০টি আসনের প্রার্থীরা জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং অফিসার মো. ইলিয়াস হোসেনের কার্যালয়ে এসব মনোনয়নপত্র জমা দেন। 

 জেলা নির্বাচনী কর্মকর্তা মো. মুনীর হোসাইন খান বলেন, মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিনে চট্টগ্রামের ১৬ আসনে ১৮০ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এরমধ্যে নগরের ৬ আসনে ৭৯ জন এবং জেলার ১০ আসনে ১০১ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তিনি জানান, পুনঃতফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র বাছাই করা হবে ২ ডিসেম্বর। ৯ ডিসেম্বর প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন। ৩০ ডিসেম্বর ভোট অনুষ্ঠিত হবে।

চট্টগ্রাম-১ (মিরসরাই) আসনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন। বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন মো. মনিরুল ইসলাম, নুরুল আমিন, কামাল উদ্দীন আহাম্মেদ ও শাহীদুল ইসলাম চৌধুরী। অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র মিলিয়ে আরও ৬ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন।

চট্টগ্রাম-২ (ফটিকছড়ি) আসনে নৌকা প্রতীকে তরিকত ফেডারেশন থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী। বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন নুরী আরা সাফা, আজিম উল্লাহ বাহার, ছালাহ উদ্দীন, খুরশীদ জামিল চৌধুরী, গিয়াস কাদের চৌধুরী। এছাড়াও অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র মিলিয়ে আরও ৭ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন।

চট্টগ্রাম-৩ (সন্দ্বীপ) আসনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন মাহফুজুর রহমান মিতা। বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন মোস্তফা কামাল পাশা। এছাড়াও অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র মিলিয়ে আরও ৬ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন।

চট্টগ্রাম-৪ (সীতাকুন্ড) আসনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন দিদারুল আলম দিদার। বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন আসলাম চৌধুরী। এছাড়াও অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র মিলিয়ে আরও ৯জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন।

চট্টগ্রাম-৫ (হাটহাজারী) আসনে লাঙ্গল প্রতীকে জাতীয় পার্টির ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ব্যারিস্টার শাকিলা ফারজানা। এছাড়াও এ আসন থেকে বাংলদেশ কল্যাণ পার্টির সভাপতি মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহিম মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

চট্টগ্রাম-৬ (রাউজান) আসনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ফজলে করিম চৌধুরী। বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরীর ছেলে সামির কাদের চৌধুরী ও জসীম উদ্দীন সিকদার। এছাড়াও অন্যান্য দল থেকে আরও ১ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন।

চট্টগ্রাম-৭ (রাঙ্গুনিয়া) আসনে আওয়ামী লীগ থেকে ড. হাসান মাহমুদ মনোনয়নপত্র জমা দেন। বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরী, মুহাম্মদ শওকত আলী নুর, আবু আহমেদ হাসনাত ও কুতুব উদ্দিন বাহার। এছাড়াও অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র মিলিয়ে আরও ৭ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন।

চট্টগ্রাম-৮ (বোয়ালখালী) আসনে নৌকা প্রতীকে জাসদের মইন উদ্দীন খান বাদল মনোনয়নপত্র জমা দেন। বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন এম মোরশেদ খান ও আবু সুফিয়ান।

চট্টগ্রাম-৯ (কোতোয়ালী) আসনে আওয়ামী লীগ থেকে ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল মনোনয়নপত্র জমা দেন। বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন শামসুল আলম, ডা. শাহাদাত হোসেন ও আবুল হাশেম বক্কর।

চট্টগ্রাম-১০ (হালিশহর) আসনে আওয়ামী লীগ থেকে ডা. আফসারুল আমিন মনোনয়নপত্র জমা দেন। বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন আবদুল্লাহ আল নোমান ও মোশাররফ হোসেন দীপ্তি। বাংলাদেশ জামায়াতের ইসলামীর কেন্দ্রীয় মজলিশে শূরার সদস্য ও সাবেক এমপি আলহাজ্ব শাহজাহান চৌধুরী মনোনয়নপত্র জমা দেন এই আসনে।

চট্টগ্রাম-১১ (বন্দর) আসনে আওয়ামী লীগ থেকে এম এ লতিফ মনোনয়নপত্র জমা দেন। বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

চট্টগ্রাম-১২ (পটিয়া) আসনে আওয়ামী লীগ থেকে সামশুল হক চৌধুরী মনোনয়নপত্র জমা দেন। বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন এনামুল হক ও গাজী শাহজাহান জুয়েল। এছাড়াও অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র মিলিয়ে আরও ৯ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন।

চট্টগ্রাম-১৩ (আনোয়ারা) আসনে আওয়ামী লীগ থেকে সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ মনোনয়নপত্র জমা দেন। বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন সরওয়ার জামাল নিজাম ও মোস্তাফিজুর রহমান। এছাড়াও অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র মিলিয়ে আরও ৭ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন।

চট্টগ্রাম-১৪ (চন্দনাইশ) আসনে আওয়ামী লীগ থেকে নজরুল ইসলাম চৌধুরী মনোনয়নপত্র জমা দেন। স্বতন্ত্র থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন এলডিপির সভাপতি ড. অলি আহমদ। এছাড়াও অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র মিলিয়ে আরও ১১ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন।

চট্টগ্রাম-১৫ (লোহাগাড়া) আসনে আওয়ামী লীগ থেকে আবু রেজা মু. নেজামুদ্দীন নদভী মনোনয়নপত্র জমা দেন। এছাড়াও অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র মিলিয়ে আরও ৭ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। এই আসনে মনোনয়নপত্র জমা দেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নায়েবে আমির ও সাবেক এমপি মাওলানা আ.ন.ম.শামসুল ইসলাম।  

চট্টগ্রাম-১৬ (বাঁশখালী) আসনে আওয়ামী লীগ থেকে মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী মনোনয়নপত্র জমা দেন। বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন জাফরুল ইসলাম চৌধুরী। এই আসনে জামায়াতে ইসলামীর উপজেলার আমীর ও বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুহাম্মদ জহিরুল ইসলাম নিজে এসে মনোনয়ন পত্র জমা দেন। এছাড়াও জাতীয় পার্টি থেকে লাঙ্গল প্রতীকে মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরীসহ অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র মিলিয়ে আরও ৭ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ