মঙ্গলবার ১৪ জুলাই ২০২০
Online Edition

বড়পুকুরিয়া কয়লা ভিত্তিক তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের পুরাতন দুটি ইউনিট ৪ মাস ধরে কয়লার অভাবে বন্ধ

দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লাভিত্তিক ৫২৫ মেগওয়াট কয়লাভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ১নং ও ২নং ইউনিট গত ৪ মাস ধরে কয়লার অভাবে বন্ধ হয়ে গেছে। ৩য় ইউনিটটি চালু রয়েছে -ছবি: মোঃ আফজাল হোসেন

মোঃ আফজাল হোসেন ফুলবাড়ী সংবাদদাতা : দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার বড়পুকুরিয়া এলাকায় অবস্থিত কয়লা ভিত্তিক তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের পুরাতুন ২টি ইউনিট ৪ মাস ধরে কয়লার অভাবে বন্ধ। দেশের উত্তর অঞ্চলে চলতি মৌসুমে ইরি বোর চাষের সময় চলে আসলেও এখন পর্যন্ত বড়পুকুরিয়া কয়লা ভিত্তিক তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের দুটি ইউনিট চালু হয়নি। ৪ মাস ধরে কয়লার অভাবে বন্ধ রয়েছে। গত মাসে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি থেকে কয়লা উত্তোলনের পর সেখান থেকে তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে সরবরাহ করার পর নির্মানাধীন ৩য় ইউনিটটি একমাত্র চালু রয়েছে। বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি থেকে পর্যাপ্ত পরিমাণ কয়লা সরবরাহ করা হলে ৩টি ইউনট চালু করা সম্ভাভ হবে। প্রতিদিন ৩টি ইউনিটে জ্বালানির জন্য প্রায় সাড়ে ৫ হাজার মে:টন কয়লা প্রয়োজন। সেই তুলনায় কয়লাখনি থেকে কয়লা সরবরাহ পাচ্ছে না তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র। ফলে উত্তর অঞ্চলে বিদ্যুৎ সরবরাহে বিঘœ ঘটছে। চাহিদার তুলনায় বিদ্যুৎ কম উৎপাদন হওয়ায় চলতি বছরে উত্তর অঞ্চলের ১৬ টি জেলায় কৃষি ও শিল্পখাতে প্রভাব পড়তে পারে। ২টি ইউনিট বন্ধ থাকার বিষয়ে গতকাল ২৮ শে নভেম্বর বুধবার বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রধান প্রকৌশলী আব্দুল হাকিমের সাথে কথা বলে তিনি জানান, বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি থেকে তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে পর্যাপ্ত পরিমাণে কয়লা সরবরাহ না থাকার কারনে ২টি ইউনিট সাময়িক বন্ধ রাখা হয়েছে। খনি কতৃপক্ষ পর্যাপ্ত পরিমানে কয়লা সরবরাহ করলে পূর্বের ন্যায় ইউনিট গুলি চালুরাখা সম্ভাব হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ