বুধবার ০২ ডিসেম্বর ২০২০
Online Edition

১৮ কাশ্মীরী নিহতের প্রতিবাদে সর্বাত্মক বনধ পালিত

২৬ নবেম্বর, পার্সটুডে : ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মিরে যৌথ প্রতিরোধ নেতৃত্বের আহ্বানে সর্বাত্মক বনধ পালিত হয়েছে। বনধকে কেন্দ্র করে উত্তর ও দক্ষিণ কাশ্মিরের সমস্ত লাইনে ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

হুররিয়াত কনফারেন্সের একাংশের প্রধান সাইয়্যেদ আলীশাহ গিলানী, মীরওয়াইজ ওমর ফারুক ও মুহাম্মাদ ইয়াসীন মালিকের সমন্বিত যৌথ প্রতিরোধ নেতৃত্বের পক্ষ থেকে গতকাল সোমবার বনধের ডাক দেয়া হয়।

যৌথ প্রতিরোধ নেতৃত্বের এক মুখপাত্র বলেন, নিরাপত্তা বাহিনীর হামলায় গত তিন দিনে ১৮ জন কাশ্মীরী নিহত হওয়ার প্রতিবাদে কাশ্মীর উপত্যকায় বনধের ডাক দেয়া হয়েছে।

মুহাম্মাদ ইয়াসীন মালিক, সাইয়্যেদ আলীশাহ গিলানী ও মীরওয়াইজ ওমর ফারুক। আজ বনধকে কেন্দ্র করে সমস্ত দোকানপাট, বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। গণপরিবহণ ব্যবস্থা অচল হয়ে পড়ায় ব্যাঙ্ক ও বিভিন্ন সরকারি দফতরে কর্মীদের হাজিরায় ব্যাপক প্রভাব পড়েছে। এদিকে, কাশ্মীরে গেরিলা ও বেসামরিক মানুষজন নিহত হওয়ার ঘটনা বৃদ্ধি পাওয়ার প্রতিবাদে গত রোববার সন্ধ্যায় যৌথ প্রতিরোধ নেতৃত্বের পক্ষ থেকে শ্রীনগরের ঐতিহাসিক জামিয়া মসজিদ চত্বরে মোমবাতি জ্বালিয়ে, ব্যানার ও প্ল্যাকার্ডসহ প্রতিবাদ জানানো হয়।

অন্যদিকে, জেকেএলএফের পক্ষ থেকে ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে গতকাল সন্ধ্যায় মৈসুমার লালচক ও কোকেরবাজারে মোমবাতি ও মশাল জ্বালিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হয়। জেকেএলএফ নেতাদের অভিযোগ, নিরাপত্তা বাহিনী অবাধে হত্যাকাণ্ড ঘটানোয় কাশ্মির কার্যত বধ্যভূমিতে পরিণত হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ