শুক্রবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

পাবনা সদর সাব-রেজিস্ট্রার ইব্রাহিম আলীর স্ত্রীকেও দুদকে তলব

 শাহজাহান তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ), ১৬ নভেম্বর : খবরছাপার পর সাব-রেজিস্ট্রার ইব্রাহিম আলীর স্ত্রী উম্মে কুলসুমকে ও  দুদক তলব করেছে। 

পাবনা সদর উপজেলার সাব-রেজিস্ট্রার ইব্রাহিম আলীর স্ত্রী মোছা: উম্মে কুলসুম পারভীনেরও স্বনামে- বেনামের জ্ঞাত আয়ের বহির্ভূত বিপুল পরিমাণ সম্পদের অনুসন্ধানে নেমেছে দুর্নীতি দমন কমিশন এর প্রধান কার্যালয়। 

এ কারণে তাকে দুদকে তলব করা হয়েছে এবং ঘটনাগুলো তদন্ত করার জন্য সেখান থেকে এক উপ-পরিচালককে অনুসন্ধানী কর্মকর্তা নিয়োগ করা হয়েছে। জ্ঞাত আয়ের বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করার অপরাধে সাব-রেজিস্ট্রার ইব্রাহিম আলীর বিরুদ্ধে গত ১৫ অক্টোবর ডিএমপির দারুস সালাম থানায় দুদক কর্তৃক দায়েরকৃত একটি মামলাও তদন্ত করছে দুদক। জানা গেছে, দুর্নীতি দমন কমিশন আইন. ২০০৪ (২০০৪ সনের ৫ং আইন) এর ধারা ২৬ এর উপ-ধারা (১) দ্বারা অর্পিত ক্ষমতাবলে গতকাল পাবানা দুদক অফিসের মাধ্যমে মোছা: উম্মে কুলসুম পারভীনের স্বামী ও তার উপর নির্ভরশীল ব্যক্তিবর্গের স্বনামে/বেনামে অর্জিত যাবতীয় স্থাবর/অস্থাবর সম্পদ/সম্পত্তি, দায়-দেনা, আয়ের উৎস ও উহা অর্জনের বিস্তারিত বিবরণী এক পত্রের মাধ্যমে চাওয়া হয়েছে সংস্থাটির প্রধান কার্যালয় থেকে। তিনি পাবনা সদর উপজেলার সাব-রেজিস্ট্রার ইব্রাহিম আলীর স্ত্রী। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সম্পদ বিবরণী দাখিল করতে ব্যর্থ হলে অথবা মিথ্যা বিবরণী দাখিল করলে উপরোক্ত আইনের ধারা ২৬ এর উপ-ধারা (২) মোতাবেক তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও দুর্নীতি দমন কমিশনের মোছা: মাহফুজা খাতুন নামক এক উপ-পরিচালকের স্বাক্ষরিত ওই পত্রে উল্লেখ্য করা হয়েছে। 

পত্রে আরও উল্লেখ্য করা হয়েছে যে, প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে অনুসন্ধান করে দুর্নীতি দমন কমিশনের স্থির বিশ্বাস যে, উক্ত সাব-রেজিস্ট্রার ইব্রাহিম আলীর স্ত্রী মোছা: উম্মে কুলসুম পারভীনের স্বনামে-বেনামে জ্ঞাত আয়ের বহির্ভূত বিপুল পরিমাণ সম্পদের মালিক হয়েছেন। উল্লেখ্য: স্বল্প সময়ের ব্যবধানে জ্ঞাত আয়ের বহির্ভূত প্রায় আড়াই কোটি টাকার সম্পদ অর্জন করার অপরাধে দলিল লেখক থেকে সাব-রেজিস্ট্রার হওয়া পাবনা সদর উপজেলার সাব-রেজিস্ট্রার ইব্রাহিম আলীর বিরুদ্ধে গত ১৫ অক্টোবর ডিএমপির দারুস সালাম থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা নং-২২। মামলাটি করেছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের সহকারী পরিচালক শেখ গোলাম মাওলা। উক্ত মামলাটিও তদন্ত করা হচ্ছে দুদকের প্রধান কার্যালয় থেকে। ইব্রাহিম আলী পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার রামচন্দ্রপুর গ্রামের মৃত: ইরাদ আলীর ছেলে। তিনি বর্তমানে ঢাকার মিরপুরের টোলারবাগ এলাকায় নিজস্ব বাসায় পরিবার নিয়ে বসবাস করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ